খুলেছে প্রাথমিক বিদ্যালয়, নতুন নিয়মে চলছে ক্লাস

বার্তাজগৎ২৪/কেএইচ
বার্তাজগৎ২৪ ডেস্ক: বার্তাজগৎ২৪ ডেস্ক:
প্রকাশিত: ১২:৫০ অপরাহ্ন, ১২ মে ২০২২ | আপডেট: ১২:৫০ অপরাহ্ন, ১২ মে ২০২২
ফাইল ছবি

পবিত্র ঈদুল ফিতরের ছুটি শেষে বৃহস্পতিবার (১২ মে) থেকে খুলেছে দেশের সব সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়। করোনা পরিস্থিতি উন্নতি হওয়ায় আজ থেকে ক্লাস চলছে নতুন নিয়মে। নতুন নিয়মানুযায়ী, এক শিফটের প্রাইমারি স্কুলগুলোর ক্লাস বিকেল সোয়া তিনটা পর্যন্ত অনুষ্ঠিত হবে। আর দুই শিফটের স্কুলগুলোর ক্লাস চলবে বিকেল চারটা পর্যন্ত ক্লাস চলবে।

আরও পড়ুন : ডেসটিনির রফিকুলের ১২, হারুনের ৪ বছরের কারাদণ্ড

অন্যদিকে শিক্ষার্থীদেরও প্রতিদিন ক্লাস শুরুর আগে সমাবেশসহ মানতে হচ্ছে বেশকিছু নির্দেশনা। গত সোমবার (৯ মে) রাতে এ নির্দেশনা জারি করে প্রাথমিক শিক্ষা অধিদফতর (ডিপিই)। পরবর্তী আদেশ না দেওয়া পর্যন্ত এসব সিদ্ধান্ত কার্যকর থাকবে বলেও জানানো হয় নির্দেশনায়।

ডিপিই’র নির্দেশনা গুলো হলো- এক শিফট বিশিষ্ট বিদ্যালয়গুলোতে শনিবার থেকে বুধবার সকাল ৯টা থেকে বিকেল সোয়া ৩টা পর্যন্ত এবং বৃহস্পতিবার বিকেল ২টা ২৫ পর্যন্ত (প্রথম ও দ্বিতীয় শ্রেণি সকাল সাড়ে ৯টা থেকে দুপুর ১টা পর্যন্ত এবং তৃতীয়, চতুর্থ ও পঞ্চম শ্রেণি সকাল ৯টা থেকে বিকেল সোয়া ৩টা পর্যন্ত) শ্রেণি পাঠদান কার্যক্রম চলবে।

দুই শিফটের বিদ্যালয়গুলোতে শনিবার থেকে বুধবার সকাল ৯টা থেকে বিকেল ৪টা পর্যন্ত এবং বৃহস্পতিবার বিকেল আড়াইটা পর্যন্ত (প্রথম ও দ্বিতীয় শ্রেণি সকাল ৯টা থেকে ১১টা ৫০ মিনিট পর্যন্ত এবং তৃতীয়, চতুর্থ ও পঞ্চম শ্রেণি সকাল সাড়ে ১১টা থেকে বিকেল ৪টা পর্যন্ত) শ্রেণি পাঠদান কার্যক্রম চলমান থাকবে।

এক শিফট বিশিষ্ট বিদ্যালয়গুলোতে প্রাক-প্রাথমিক শ্রেণি কার্যক্রম শনিবার থেকে বৃহস্পতিবার সকাল সাড়ে ৯টা থেকে বেলা ১২টা এবং দুই শিফট বিশিষ্ট বিদ্যালয়গুলোতে সকাল ৯টা থেকে সাড়ে ১১টা পর্যন্ত ক্লাস চলবে।

এক শিফট বিশিষ্ট বিদ্যালয়গুলো দৈনিক সমাবেশ সকাল ৯ থেকে ৯টা ২৫ মিনিট পর্যন্ত এবং দুই শিফট বিশিষ্ট বিদ্যালয়গুলো সকাল সাড়ে ১১টা থেকে ১১টা ৫০ মিনিট পর্যন্ত স্বাস্থ্যবিধি মেনে পরিচালনা করতে হবে।

প্রধান শিক্ষক বিষয়ভিত্তিক প্রশিক্ষণপ্রাপ্ত শিক্ষকদের অগ্রাধিকার দিয়ে রুটিন প্রণয়ন করে সংশ্লিষ্ট ক্লাস্টারের সহকারী উপজেলা বা থানা শিক্ষা অফিসারের অনুমোদন নেবেন।

ঢাকা মহানগরীর প্রাথমিক বিদ্যালয়ের পাঠদানের সময়সূচির ক্ষেত্রে প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়ের আগের ক্লাস রুটিন অনুসরণ করতে বলা হয়েছে। শিখন ঘাটতি পূরণে যথাযথ পদক্ষেপ নিতে হবে। ডিপিই থেকে এ নির্দেশনাগুলো।

প্রসঙ্গত, করোনার ক্ষতি পুষিয়ে নিতে এবার রমজানে খোলা রাখা হয় শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান। গত ২২ এপ্রিল থেকে ঈদের ছুটি শুরু হয় প্রাথমিক বিদ্যালয়ে।

বার্তাজগৎ২৪/কেএইচ