ছোট ভাইকে হত্যার দায়ে বড় ভাইয়ের মৃত্যুদণ্ড বহাল

বার্তাজগৎ২৪ ডেস্ক: বার্তাজগৎ২৪ ডেস্ক:
প্রকাশিত: ৪:৪৪ অপরাহ্ন, ২৩ মার্চ ২০২২ | আপডেট: ৪:৪৪ অপরাহ্ন, ২৩ মার্চ ২০২২
বার্তাজগৎ২৪
ছোট ভাই খায়রুল ইসলাম ভরসা ওরফে কাজলকে হত্যায় বড় ভাই কবিরুল ইসলাম ভরসাকে নিম্ম আদালতে দেওয়া মৃত্যুদণ্ড বহাল রেখেছেন হাই কোর্ট। বুধবার সাজা অনুমোদনের ওপর শুনানি শেষে বিচারপতি সৈয়দ মো. জিয়াউল করিম ও বিচারপতি সরদার মো. রাশেদ জাহাঙ্গীরের হাইকোর্ট বেঞ্চ এই রায় দেন। আদালতে কবিরুলের পক্ষে শুনানি করেন রাষ্ট্রনিযুক্ত আইনজীবী হাফিজুর রহমান খান। রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল মো. জাহাঙ্গীর আলম। রায় ঘোষণার পর ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল মো. জাহাঙ্গীর আলম গণমাধ্যমকে বলেন, ‘আসামি বিচারিক আদালতের রায়ের আগে থেকেই পলাতক। ফলে দণ্ডের বিরুদ্ধে কোনো আপিল ছিল না। ডেথ রেফারেন্স গ্রহণ করে আদালত রায় দিয়েছে।’ জাতীয় পার্টির সাবেক সাংসদ শিল্পপতি করিম উদ্দীন ভরসার ছোট ছেলে কাজলকে ২০০৯ সালের ২৭ এপ্রিল রাজধানীর বিজয়নগরের একটি অফিসে গুলি করে হত্যা করেন বড়ভাই কবিরুল। হত্যাকাণ্ডের পর নিহতের শ্যালক ইমরান হোসেন বাদী হয়ে পল্টন থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন। সেখানে কবিরুল ইসলাম ভরসাকেই একমাত্র আসামি করা হয়। এ ঘটনার প্রায় তিন সপ্তাহ পর রাজধানীর উত্তরখানের একটি মাদকাসক্তি নিরাময় কেন্দ্র থেকে কবিরুলকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ। এ ঘটনায় তিনি আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দিও দেন। পরে জামিনে বেরিয়ে পালিয়ে যান। তারপর থেকে তিনি পলাতক। হতাকাণ্ডের সাত বছরের মাথায় ২০১৬ সালের ১১ এপ্রিল ঢাকার চতুর্থ মহানগর দায়রা জজ আদালত এ মামলার রায় দেন। রায়ে কবিরকে মৃত্যুদণ্ড দেওয়া হয়। পরে নিয়ম অনুযায়ী মৃত্যুদণ্ডাদেশ অনুমোদনের জন্য ডেথ রেফারেন্স হাই কোর্টে পাঠানো হয়। তার ওপর শুনানি শেষে বুধবার রায় দেয় আদালত।