সরকারি কর্মকর্তাদের সব ধরনের বিদেশ ভ্রমণ বন্ধ, পরিপত্র জারি

বার্তাজগৎ২৪/কেএইচ
বার্তাজগৎ২৪ ডেস্ক: বার্তাজগৎ২৪ ডেস্ক:
প্রকাশিত: ৯:০৪ অপরাহ্ন, ১২ মে ২০২২ | আপডেট: ৯:৩২ অপরাহ্ন, ২৭ মে ২০২২
ফাইল ছবি

বৈদেশিক মুদ্রার ব্যয় কমাতে সরকারি কর্মকর্তাদের বিদেশ সফরে নিষেধাজ্ঞা আরোপ করেছে সরকার। পরবর্তী নির্দেশ না দেওয়া পর্যন্ত এ আদেশ বলবৎ থাকবে।

বৃহস্পতিবার অর্থমন্ত্রণালয়ের উপ-সচিব মোহাম্মদ শওকত উল্লাহর স্বাক্ষরে এ সংক্রান্ত পরিপত্র জারি করেছে সরকারের অর্থ বিভাগের ব্যয় ব্যবস্থাপনা-৬ অধিশাখা।

এতে বলা হয়েছে, ‘করোনাভাইরাস পরবর্তী অর্থনৈতিক পুনরুদ্ধার এবং বর্তমান বৈশ্বিক সংকটের প্রেক্ষাপটে পুনরাদেশ না দেওয়া পর্যন্ত সকল প্রকার এক্সপোজার ভিজিট, স্টাডি ট্যুর, এপিএ ও ইনোভেশনের আওতাভুক্ত ভ্রমণ এবং কর্মশালা ও সেমিনারে অংশগ্রহণসহ সকল প্রকাশ বৈদেশিক ভ্রমণ বন্ধ থাকবে।’

এ আদেশ উন্নয়ন বাজেট ও পরিচালন বাজেট উভয় ক্ষেত্রে প্রযোজ্য এবং কার্যকর হবে বলেও জানানো হয়।

এর আগে বুধবার অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল সরকারি ক্রয় সংক্রান্ত মন্ত্রিসভা কমিটির বৈঠকের পর সাংবাদিকদের প্রশ্নের উত্তরে বলেন, ‘জরুরি প্রয়োজন ছাড়া নতুন করে বিদেশ ভ্রমণের অনুমোদন না দেওয়ার জন্য প্রধানমন্ত্রী নির্দেশনা দিয়েছেন। ফলে আপাতত বিদেশ সফর নয়। ’

সম্প্রতি ধারাবাহিকভাবে বৈদেশিক মুদ্রার মজুদ কমছে। বিশ্ববাজারে পণ্যমূল্য বেড়ে যাওয়ায় আমদানি বাবদ প্রচুর ব্যয় হচ্ছে। ফলে দেশে ডলারের চাহিদা বেড়েছে ব্যাপকভাবে। পরিস্থিতি সামাল দিতে বাংলাদেশ ব্যাংক ডলার বিক্রি করছে। চলতি অর্থবছরের এ পর্যন্ত কেন্দ্রীয় ব্যাংক ৫০০ কোটি ডলার বিক্রি করেছে। এ অবস্থায় সরকার বিভিন্নভাবে বৈদেশিক মুদ্রার ব্যয় কমাতে চাচ্ছে। এরইমধ্যে বিলাস পণ্যের আমদানি কমাতে এলসি মার্জিন বাড়িয়েছে বাংলাদেশ ব্যাংক।

সরকারের অর্থায়নে বাস্তবায়নের জন্য নির্বাচিত যেসব প্রকল্পে বৈদেশিক মুদ্রা ব্যয়ের বিষয় রয়েছে সেগুলো দেরিতে বাস্তবায়নের সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে বলে জানিয়েছেন অর্থমন্ত্রী।

বৈশ্বিক পরিস্থিতি বিবেচনায় বৈদেশিক মুদ্রা ব্যয়ে লাগাম টানার এ চেষ্টা সরকারের।

বার্তাজগৎ২৪/কেএইচ