আগস্ট মাসে প্রমোদ ভ্রমণে যাওয়ায় আদর্শিক প্রশ্নের সম্মুখীন 'বশেমুরবিপ্রবি'

বার্তা জগৎ ডেস্ক:

প্রকাশিতঃ ১০ অগাস্ট ২০১৯ সময়ঃ বিকেল ৪ঃ১১
আগস্ট মাসে প্রমোদ ভ্রমণে যাওয়ায় আদর্শিক প্রশ্নের সম্মুখীন 'বশেমুরবিপ্রবি'
আগস্ট মাসে প্রমোদ ভ্রমণে যাওয়ায় আদর্শিক প্রশ্নের সম্মুখীন 'বশেমুরবিপ্রবি'

 

মোল্যা আনিসুর রহমান (আনিস):

আগস্ট মাস শোকের মাস। এ মাসে বাঙালি জাতি হারিয়েছিলো হাজার বছরের শ্রেষ্ঠ বাঙালি জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে। আর এই শোকের মাসেই গোপালগঞ্জে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের নিজ নামে নির্মিত বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (বশেমুরবিপ্রবি) উপাচার্য প্রফেসর ড. খোন্দকার নাসিরউদ্দিন  শিক্ষকদের নিয়ে গত সপ্তাহে প্রমোদ ভ্রমণ করে এসেছেন। 

জানা যায়, বশেমুরবিপ্রবি উপাচার্য বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক, কর্মকর্তা, কর্মচারীসহ ৩ আগস্টে সিলেটে আনন্দ ভ্রমণে গিয়েছেন। বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন শিক্ষক, কর্মকর্তা, কর্মচারীদের ফেসবুক পোস্টে উপাচার্যকে বেশ আনন্দিত, বিভিন্ন সময়ে দাঁত বের  করা হাসিতে ছবি তোলার পোজ দিতেও দেখা গেছে। 

এই শোকের মাসে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের নিজ জেলায়, নিজ নামে নির্মিত বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্যের এমন প্রমোদ ভ্রমণ এবং হাসি, তামাশা করা ছবি দেখে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে উঠেছে সমালোচনার ঝড়। কেউ কেউ এটাকে আর্দশিক সংকট বলেও অভিহিত করছেন। কেননা, তিনি যুক্তরাজ্যে থাকা কালীন যুক্তরাজ্য শাখা ছাত্রদলের রাজনীতির সঙ্গে ওতপ্রোতভাবে জড়িত ছিলেন। এমনকি কর্মক্ষেত্রেও এসেও তিনি বিএনপি সমর্থিত রাজনীতির সঙ্গে জড়িত ছিলেন। এর আগে ময়মনসিংহ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের বিএনপি-জামায়াত সমর্থিত শিক্ষক প্যানেল সোনালি দলের সাবেক যুগ্ম সম্পাদকের দায়িত্বও পালন করেছেন। 

এ বিষয়ে নাম প্রকাশ না করার স্বার্থে বশেমুরবিপ্রবি'র এক শিক্ষক বার্তা জগৎ২৪ ডটকমকে বলেন, বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্যের পদটি একটি দায়িত্বশীল পদ। এ পদে থেকে দায়িত্ব অবহেলা বা এড়িয়ে যাওয়ার কোন সুযোগ নেই।সাদারণত একজন মানুষ ছাত্রজীবন থেকে একটা আদর্শ বুকে ধারণ করে বড় হয়। শুনেছি ওনি ছাত্রজীবনে এমনকি শিক্ষক হিসেবে যোগদানের পরও বিএনপির সমর্থিত রাজনীতির সঙ্গে ওতপ্রোতভাবে জড়িত ছিলেন। যেখানে বিএনপি প্রধান খালেদা জিয়া আগস্ট মাসে কেক কেটে ভুয়া জন্মদিন পালন করে। সেখানে সেই দলের আদর্শ ধারণকারী একজন উপাচার্যের দ্বারা আগস্ট মাসে আনন্দ, উল্লাস করে বেড়ানো খুবই স্বাভাবিক বিষয় হয়ত।

এ বিষয়ে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য ড. খোন্দকার নাসিরউদ্দিন বার্তা জগৎ২৪ ডট কমকে বলেন, তার বিরুদ্ধে বিএনপি করার অভিযোগ সম্পূর্ণ মিথ্যা৷ কারণ প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কাছে তার সব তথ্য আছে। তিনি সব তথ্য যাচাই করেই তাকে এই দায়িত্ব দিয়েছেন। 

তিনি আরো বলেন, কিছু বাঁচাল সাংবাদিক প্ররোচিত হয়ে আমার নামে মিথ্যা সংবাদ প্রকাশ করছে। 

সম্প্রতি বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশন (ইউজিসি) তার বিরুদ্ধ যে দুর্নীতি ও যৌন হয়রানির অভিযোগ এনেছে এমন প্রশ্নের জবাবে, এ বিষয়ে তিনি কিছু জানেন না বলে ফোন কেটে দেন। 

উল্লেখ্য, ২০১৫ সালের ২ ফেব্রুয়ারি বিশ্ববিদ্যালয়ের দ্বিতীয় উপাচার্য হিসেবে দায়িত্ব গ্রহণ করেন ড. খন্দকার নাসিরউদ্দিন। দায়িত্ব গ্রহণের পর থেকেই তার বিরুদ্ধে বিভিন্ন রকমের অনিয়ম ও দুর্নীতির ব্যাপক অভিযোগ উঠে। নিয়োগ বাণিজ্য, ভর্তি বাণিজ্য, বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসে বিউটি পার্লার খুলে রমরমা ব্যবসার মতো ডজনখানেক অভিযোগ রয়েছে তার নামে। যা বিগত দিতে বিভিন্ন সময়ে জাতীয় দৈনিকে ফলাও করে প্রকাশিত হয়েছে।

বার্তা জগৎ২৪/ এম এ