'আগস্ট মাস বাংলা মায়ের হৃদয়ে রক্তক্ষরণ ঘটানো শোকাবহ মাস'

বার্তা‌জগৎ২৪ ডেস্কঃ

প্রকাশিতঃ ২৫ অগাস্ট ২০১৯ সময়ঃ দুপুর ১২ঃ৩৫
'আগস্ট মাস বাংলা মায়ের হৃদয়ে রক্তক্ষরণ ঘটানো শোকাবহ মাস'
'আগস্ট মাস বাংলা মায়ের হৃদয়ে রক্তক্ষরণ ঘটানো শোকাবহ মাস'

বার্তা‌জগৎ২৪ ডেস্কঃ

আগস্ট মাস বাংলার মানুষের ভাগ্যে অশনি সংকেত বয়ে আনা মাস। আগস্ট মাস বাংলা মায়ের হৃদয়ে রক্তক্ষরণ ঘটানো শোকাবহ মাস। মহান মুক্তিযুদ্ধে পরাজিত হয়ে রক্তচোষাদের ষড়যন্ত্র থেমে থাকেনি। পরাজয়ের প্রতিশোধ নিতে তারা একের পর এক চক্রান্তের ফাঁদ পেতেছে। 

তারই ফলফল হিসেবে ১৯৭৫ সালের ১৫ই আগস্ট হাজার বছরের সেরা বাঙালি জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে সপরিবারে হত্যা করা হয়। মানুষ রূপি নির্মম জানোয়ারদের হাতে ঐ দিন খুন হওয়া ২৮ জন নিরপরাধ মানুষের মধ্যে ছিলেন নিষ্পাপ শিশু ১০ বছরের শেখ রাসেল এবং আবুল হাসনাত আবদুল্লাহ এমপির জ্যেষ্ঠ পুত্র, ৪ বছরের শিশু বাবু। 

শোক কে শক্তিতে রূপান্তর করে যখন জাতির জনকের কন্যা জননেত্রী শেখ হাসিনা এদেশের মানুষের গণতান্ত্রিক অধিকার রক্ষার জন্য লড়াই করে যাচ্ছিলেন সেই সময়ে বাঙালির আশার প্রদীপ দেশরত্ন শেখ হাসিনাকে হত্যার উদ্দেশ্যে ২০০৪ সালের ২১শে আগস্ট পরাজিত শক্তির প্রেতাত্মারা পৈশাচিক গ্রেনেড হামলা চালায়। এ হামলায় নিহত হন আইভি রহমান সহ আওয়ামী লীগের ২৪ জন নেতাকর্মী। প্রাণে বেঁচে গেলেও মারাত্মক আহত হন তৎকালীন প্রধান বিরোধীদলীয় নেত্রী এবং বর্তমানে টানা তিনবারের প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনা সহ তিন শতাধিক নেতাকর্মী, যাদের অনেকে এখনো শরীরে বয়ে বেড়াচ্ছেন বোমার স্প্লিন্টার।

দেশকে জঙ্গিবাদের অভয়ারণ্যে রূপান্তর করতে অপশক্তির মদদে ২০০৫ সালের ১৭ আগস্ট সারা দেশের ৬৩ টি জেলায় ৫০০ স্থানে সিরিজ বোমা বিস্ফোরণের মাধ্যমে ২ জনকে হত্যা এবং ৫০ জনকে আহত করা হয়। এত আঘাতের পরেও বাংলার মুজিবপ্রেমি মানুষকে তাদের আদর্শ থেকে বিচ্যুত করতে পারেনি স্বাধীনতা বিরোধী রক্তপিপাসু গোষ্ঠী। 

বাংলার মানুষ জাতির জনকের কন্যার নেতৃত্বে বাংলাদেশকে ডিজিটাল বাংলাদেশে রূপান্তরিত করছে এবং ডিজিটাল বাংলাদেশের অনুকরণীয় অগ্রগতি যেকোনো মূল্য সমুন্নত রাখবে ইনশাআল্লাহ।  

জয় বাংলা, জয় বঙ্গবন্ধু।

লেখকঃ

এম এ সায়েম

সাংগঠনিক সম্পাদক

ঢাকা মহানগর দক্ষিণ ছাত্রলীগ।

বার্তা‌জগৎ২৪.কম/এফ এইচ পি