'এডভোকেট সুরাজ' নিয়ে শামস হাসান কাদির

বার্তাজগৎ২৪ ডেস্ক:

প্রকাশিতঃ ৫ সেপ্টেম্বর ২০১৯ সময়ঃ বিকেল ৪ঃ৪৬
'এডভোকেট সুরাজ' নিয়ে শামস হাসান কাদির
'এডভোকেট সুরাজ' নিয়ে শামস হাসান কাদির

আফজালুর ফেরদৌস রুমন:

বাংলাদেশের মডেলিং জগতে এক সফল এবং জনপ্রিয় নাম শামস হাসান কাদির। র‍্যাম্প, ম্যাগাজিন এবং বিলবোর্ডের গণ্ডি পেরিয়ে বাংলাদেশের প্রথম অ্যাডভেঞ্জার চলচ্চিত্র 'হ্নদয়ের রংধনু' সিনেমার মধ্য দিয়ে বড় পর্দায় নাম লিখিয়েছেন তিনি। পাশাপাশি নিজের প্রতিষ্ঠান নিয়ে ব্যস্ত সময় পার করা মানুষটি এবার নতুন পরিচয়ে সবার সামনে। এবার প্রযোজক হিসেবেও নাম লেখালেন তিনি। এসএইচকে গ্লোবাল নামক প্রতিষ্ঠানের প্রথম সিনেমা 'এডভোকেট সুরাজ' প্রযোজনার মধ্য দিয়ে প্রযোজক হিসেবে যাত্রা শুরু করলেন তিনি। 

প্রথমেই পরিচালক নির্বাচনের মধ্য দিয়েই বেশ বড়সড় একটি চমক দিলেন শামস হাসান কাদির। কিছুদিন আগে বাংলাদেশের প্রখ্যাত এবং জনপ্রিয় এক দক্ষ পরিচালক যিনি বিগত ৩০ বছর ধরে লোকচক্ষুর আড়ালে সেই সি.বি. জামান কে নিজের প্রযোজনায় প্রথম সিনেমার পরিচালক হিসেবে পরিচয় করিয়ে দেন তিনি। পরিচালক সি.বি. জামান নিজের ক্যারিয়ার শুরু করেন ১৯৬৬ সালে লাহোর ফিল্ম ইন্ডাস্ট্রিতে এ্যাসিস্টেন্ট ডিরেক্টর হিসেবে। ১৯৭৩ সাল হতে ১৯৯০ সাল পর্যন্ত সরাসরি চলচ্চিত্র পরিচালনার সাথে সম্পৃক্ত ছিলেন। এ সময়ে তিনি নির্মাণ করেন একে একে ঝড়ের পাখি (১৯৭৩), উজান ভাটি (১৯৮২), পুরস্কার (১৯৮৩), শুভরাত্রি (১৯৮৫), হাসি (১৯৮৬), লাল গোলাপ (১৯৮৯) ও কুসুম কলি'র (১৯৯০) মতো কালজয়ী চলচ্চিত্র।

এই প্রসঙ্গে এসএইচকে গ্লোবাল এর চেয়ারম্যান শামস হাসান কাদির জানান, ‘আমাদের দেশের কালচার হচ্ছে, আমরা গুণীজনদের সম্মান দেই উনারা আমাদের কাছ থেকে চলে যাওয়ার পর। অথচ উনারা আমাদের মাঝে থাকা অবস্থায়ই উনাদেরকে সম্মান জানানোটা আমাদের উচিত। সেই ধারা চালু করারই প্রথম প্রয়াস আমাদের জীবন্ত কিংবদন্তী সি.বি. জামান স্যারকে আমাদের 'এডভোকেট সুরাজ' চলচ্চিত্রের পরিচালক হিসেবে অন্তর্ভূক্ত করা।

এ বিষয়ে পরিচালক সি.বি. জামান জানান, ‘আমার মুক্তিপ্রাপ্ত সর্বশেষ ছবি কুসুম কলি, যেটা ১৯৯০ সালে মুক্তি পেয়েছে। এরপর অনেক প্রযোজকই আমার কাছে এসেছে ছবি বানানোর জন্য তবে সেগুলির গল্প এবং প্ল্যান আমার পছন্দ না হওয়ার কারণে এতদিন ছবি পরিচালনা করিনি। এই প্রযোজনা প্রতিষ্ঠানটির প্ল্যান এবং ''এডভোকেট সুরাজ'' চলচ্চিত্রের গল্প আমার কাছে ভালো লাগায় আবারও ৩০ বছর পর পরিচালনা শুরু করলাম। আশাকরি ভিন্নধর্মী গল্পের এই সিনেমাটি সবার ভালো লাগবে। 

আজ রিলিজ দেয়া হয়েছে 'এডভোকেট সুরাজ' সিনেমার ফার্স্টলুক পোষ্টার। প্রথম দেখায় বাইরের দেশের কোন সিনেমার পোষ্টার মনে হলেও এটি বাংলাদেশের একটি সিনেমার পোষ্টার। পোষ্টারেই উল্লেখ করা হয়েছে এটি একটি রোমান্টিক অ্যাকশন থ্রিলার ঘরানার সিনেমা। সিনেমায় নাম ভূমিকায় অভিনয় করছেন শামস হাসান কাদির নিজেই। প্রযোজক এবং অভিনেতা শামস হাসান কাদির জানান, কিছুদিনের জন্য মুম্বাই যাচ্ছেন তিনি সেখান থেকে ফিরেই সিনেমার চূড়ান্ত শিল্পী তালিকা প্রকাশ করা হবে। সিনেমার শ্যুটিং বাংলাদেশ সহ আরো কিছু দেশে সম্পন্ন হবে বলেও জানান তিনি। 

হঠাৎ করে প্রযোজক হিসেবে নাম লেখালে বাংলাদেশের সিনেমা এবং সংস্কৃতির প্রতি আলাদা একটা টান সবসময়ই ছিল তার। আধুনিক সময়ের সাথে মানানসই কিন্তু নিজের দেশের ঐতিহ্যর সাথে মিল রেখেই সিনেমা বানাতে চান তিনি। পরিবার-পরিজন, বন্ধু, এবং কাছের মানুষদের সাথে নিয়ে দেখা যায় এমন বিনোদনধর্মী সিনেমা উপহার দেবার প্রত্যাশা রয়েছে এই তরুণের। সবকিছু ঠিক থাকলে ২০২০ সালেই মুক্তি পাচ্ছে 'এডভোকেট সুরাজ'।

বার্তাজগৎ২৪/এম এ/এফ এইচ পি

Share on: