প্রথম দিনেই পোর্ট কানেকটিং রোড মেরামতের নির্দেশ দিল সুজন

দিদারুল ইসলাম:

প্রকাশিতঃ ৬ অগাস্ট ২০২০ সময়ঃ রাত ৯ঃ৪২
প্রথম দিনেই পোর্ট কানেকটিং রোড মেরামতের নির্দেশ দিল সুজন
প্রথম দিনেই পোর্ট কানেকটিং রোড মেরামতের নির্দেশ দিল সুজন

 

দিদারুল ইসলাম:

চসিকের প্রশাসক হিসেবে নিয়োগ পেয়ে প্রথম দিনেই জনগণের দুর্ভোগ সরেজমিনে দেখতে ছুটে গেলেন খোরশেদ আলম সুজন।

চট্টগ্রাম নগরীর পোর্ট কানেকটিং রোডের দুরবস্থা দেখে ৫ দিনের মধ্যেই মেরামতের কড়া নির্দেশ দিয়েছেন তিনি।

খোরশেদ আলম সুজন বলেন, নগরীর পোর্ট কানেকটিং রোডে যত গর্ত রয়েছে তা ভরাট করে যান চলাচলের উপযোগী এবং আগামী নভেম্বরের মধ্যে অবশ্যই কাজ সম্পাদন করতে হবে।

বৃহস্পতিবার (৬ আগস্ট) বিকালে পোর্ট কানেকটিং সড়কের সাগরিকা থেকে নয়াবাজার মোড় পর্যন্ত পরিদর্শনকালে তিনি এ নির্দেশনা দেন।  

এ সময় বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের এই ত্যাগী নেতা ও নতুন প্রশাসক আরও বলেন, ‘নগরের পোর্ট কানেকটিং সড়কটি অত্যন্ত জনগুরুত্বপূর্ণ।

কিন্তু দীর্ঘসূত্রিতায় নিমজ্জিত হয়ে বছরের পর বছর এ সড়কের উন্নয়নকাজ সম্পন্ন হয়নি। যা অত্যন্ত দুঃখজনক। এ নিয়ে স্থানীয় এলাকাবাসীর মনে ক্ষোভ সৃষ্টি ও চট্টগ্রামের সৌন্দর্য ও সুনামের ব্যাপক ক্ষতি হয়েছে। বিগত দিনে যে সময় গড়িয়েছে এখন আর সময়ক্ষেপণের কোনো সুযোগ নেই।

তিনি ঠিকাদার ও প্রকৌশলীদের হুঁশিয়ারি উচ্চারণ করে বলেন, ‘আমার ওপর অর্পিত দায়িত্ব আমি সর্বোচ্চ সততার মাধ্যমে পালন করতে চাই। আপনারাও আপনাদের ওপর অর্পিত দায়িত্ব সততার সঙ্গে পালন করবেন। যারা দুর্নীতি করেছেন, তারা সাবধান হয়ে যান। আমি যার কাজে অনিয়ম দেখবো, দুই নাম্বারি দেখবো, নগরবাসীর সঙ্গে যারা বেঈমানি করবেন তাদের আমি কোনোভাবেই ছাড় দেব না। নগরবাসীর সেবায় নিয়োজিতরা যারা মানুষকে কষ্ট দেয় তাদের আমি ছাড় দেব না। কোন ধরনের অন্যায়ের সঙ্গে আমি আপস করবো না। ভুল করা অপরাধ নয়। কিন্তু ইচ্ছা করে ভুল করা অপরাধ।'

প্রথম দিনেই দায়িত্ব গ্রহণ করে খোরশেদ আলম সুজনের সরেজমিনে গিয়ে পোর্ট কানেকটিং রোড পরিদর্শনের দৃশ্য দেখে সকলের মনে পড়ে গেল প্রয়াত নেতা এবিএম মহিউদ্দিন চৌধুরীর কথা। যিনি নগরীর কল্যাণে নিজের জীবনকে উৎসর্গ করে গেছেন।

খোরশেদ আলম সুজনের মধ্যে প্রিয় নেতার প্রতিচ্ছবি দেখতে পেয়ে অনেকের চোখে আনন্দাশ্রু ছল ছল করতে দেখা গেছে।

বার্তাজগৎ২৪/ এম এ

Share on: