বৃষ্টি নামাতে ব্যাঙের বিয়ে, বৃষ্টি থামাতে বিচ্ছেদ

বার্তাজগৎ২৪ ডেস্ক:

প্রকাশিতঃ ১৩ সেপ্টেম্বর ২০১৯ সময়ঃ সন্ধ্যা ৬ঃ৪৬
বৃষ্টি নামাতে ব্যাঙের বিয়ে, বৃষ্টি থামাতে বিচ্ছেদ
বৃষ্টি নামাতে ব্যাঙের বিয়ে, বৃষ্টি থামাতে বিচ্ছেদ

বার্তাজগৎ২৪ ডেস্ক:

সম্প্রতি মধ্যপ্রদেশ রাজ্যের ভোপাল শহরে এক জোড়া ব্যাঙের বিয়ের পর নামে বৃষ্টি। কিন্তু বিধি বাম। সেই বৃষ্টি আর থামার নাম নেই। শেষে বৃষ্টি থামাতে ব্যাঙ দুটির বিচ্ছেদ ঘটিয়ে দেওয়া হয়েছে। বৃষ্টির দেবতাকে সন্তুষ্ট করতে দেয়া হয় ব্যাঙের বিয়ে। আর অতিবৃষ্টি হলে করানো হয় বিবাহ বিচ্ছেদ। ভারতের মধ্যপ্রদেশে এ রীতির প্রচলন রয়েছে।

ভারতীয় সংবাদমাধ্যম এনডিটিভির খবরে বলা হয়েছে, বৃষ্টি আনতে ধুমধাম করে দুই ব্যাঙের বিয়ে দেয়া হয়েছিলো গত জুলাই মাসের ১৯ তারিখে। এরপর লাগাতার প্রবল বর্ষণের জেরে বন্যা দেখা দিয়েছে মধ্যপ্রদেশে। সেই বানের পানিতেই ভেসে যায় ব্যাঙের সুখী দাম্পত্য। এবার তাই অতিবৃষ্টি রুখতে সেখানে দুটি ব্যাঙের মধ্যে বিবাহ বিচ্ছেদ করানো হলো। আশা, এতে দেবতা খুশি হয়ে বৃষ্টি বন্ধ করবেন।

যথেষ্ট পরিমাণ বৃষ্টি পাওয়ার আশায় সনাতন বিশ্বাসে ব্যাঙের বিয়ে দেওয়ার রীতি ভারতের অনেক জায়গায় প্রচলিত। জুলাই মাসে সেই বিশ্বাসেই ভোপালে ঢাকঢোল পিটিয়ে বিয়ে দেওয়া হয়েছিলো ব্যাঙ যুগলের। এরপর বর্ষা মৌসুম এলে প্রবল বৃষ্টিপাত শুরু হয় মধ্যপ্রদেশের অধিকাংশ জেলায়। আবহাওয়া দপ্তরের হিসেবে, গত কয়েক সপ্তাহে স্বাভাবিকের চেয়ে ২৬% বেশি বৃষ্টিপাত হয়েছে ওই অঞ্চলে। অতিবৃষ্টির ফলে ইতিমধ্যেই সেখানকার ৯,০০০-এরও বেশি বাড়িঘর ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে এবং ২১৩টি বাড়ি ভেঙেও পড়েছে। এরই মধ্যে আবহাওয়া দপ্তর আগামী ২৪ ঘণ্টাতেও ভারী থেকে অতি ভারী বৃষ্টির পূর্বাভাস দিয়েছে, এবং এলকায় রেড অ্যালার্ট এবং অরেঞ্জ অ্যালার্ট জারি করেছে।

এ দেশে প্রায় সময়েই বৃষ্টির আশায় ব্যাঙের বিয়ে দেওয়ার প্রচলন রয়েছে। বৃষ্টি দেবতাকে সন্তুষ্ট করতে ‘মান্দুকা পরিণায়া’ নামে একটি বিশেষ রীতিও চালু আছে।

বার্তা‌জগৎ২৪.কম/এফ এইচ পি

Share on: