• মঙ্গলবার, ১৮ মে ২০২১ , ৪ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৮
  • আর্কাইভ

মঙ্গলবার, ১৮ মে ২০২১ , ৪ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৮

আটক স্পিডবোটের চালক, পরিচয় মিলেছে মৃত ৮ জনের 

বার্তাজগৎ২৪ ডেষ্ক
প্রকাশিত :সোমবার, মে ৩, ২০২১, ০৫:৩৬

  • বাল্কহেড-স্পিডবোট সংঘর্ষে নিহত

    মাদারীপুরের শিবচরের বাংলাবাজার ঘাটে বালুবোঝাই বাল্কহেডে স্পিডবোটের ধাক্কা দুর্ঘটনায় ২৬ জনের মরদেহ উদ্ধারের ঘটনায় চালক মো. শাহ আলমকে আটক করা হয়েছে।


     

    সোমবার (০৩ এপ্রিল) বিকেলে তাকে আটক করা হয়েছে বলে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন শিবচর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মিরাজ হোসেন।    

     

    আটকের পর শিবচর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে পুলিশ হেফাজতে চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে বলে জানান তিনি।

     

    এদিকে দুর্ঘটনায় নিহত ৮ জনের পরিচয় পাওয়া গেছে তবে বাকি ১৮ জনের এখন পরিচয় পাওয়া যায়নি বলে জানা যায়। ৮ জন হলেন- কুমিল্লার দাউদকান্দি উপজেলার মাইখারকান্দি এলাকার কাওসার হোসেন (৪০) ও রুহুল আমিন (৩৫), ফরিদপুরের আলফাডাঙ্গা উপজেলার মাইগ্রো এলাকার আরজু সরদার (৪০) ও তাঁর দেড় বছর বয়সী ছেলে ইয়ামিন,মাদারীপুরের রাজৈর শঙ্কারদি এলাকার তাহের মীর (৩০), তিতাস উপজেলার ইসুবপুর এলাকার জিয়াউর রহমান (২৮),মাদারীপুরের রাজৈর শঙ্কারদি এলাকার তাহের মীর (৩০) মুন্সিগঞ্জের সাতপাড় এলাকার সাগর শেখ (৩৭), পিরোজপুরের ভান্ডারিয়া উপজেলার পসারিয়াবুনিয়া এলাকার জনি অধিকারী (২৬)। তাঁদের লাশ স্বজনদের কাজে হস্তান্তর করা হয়েছে।

     

    আরো পড়ুন -

    ১.১৬ মে পর্যন্ত লকডাউন বাড়ছে

    ২.বাল্কহেডে স্পিডবোটের ধাক্কা, ২৬ মৃতদেহ উদ্ধার, নিখোঁজ অনেকে

    ৩- আইপিএল থেকে সাকিব - মুস্তাফিজকে ফিরিয়ে আনছে বিসিবি

    ৪-মুখ থুবড়ে পড়েছে লকডাউন

    ৫- একদিনে আরও ৬৫ জনের মৃত্যু, শনাক্ত ১,৭৩৯

     

    তবে এ দুর্ঘটনায় এখন পর্যন্ত অনেকে নিখোঁজ রয়েছেন বলে জানা যায়। 

     

    শিবচরের বাংলাবাজার ফেরিঘাটের ট্রাফিক পরিদর্শক আশিকুর রহমান জানান, সোমবার ভোরে মুন্সিগঞ্জের শিমুলিয়া থেকে ৩০-৩৫ জন যাত্রী নিয়ে মাদারীপুরের শিবচরের বাংলাবাজারের দিকে আসছিল স্পিডবোটটি। ঘাটের কাছাকাছি এলে নোঙর করা বালুবোঝাই একটি বাল্কহেডে ধাক্কা লেগে স্পিডবোটটি উল্টে যায়। দুর্ঘটনার সংবাদ পেয়ে ফায়ার সার্ভিস ও নৌপুলিশ উদ্ধার অভিযান শুরু করলে ঘটনাস্থল থেকে এখন পর্যন্ত ২৪ জনের মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। এছাড়া জীবিত উদ্ধার করা ৬ জনকে হাসপাতালে নেওয়া হলে সেখানে আরও ২ জন মারা যান।

     


    এ ঘটনায় ৬ সদস্যের তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়। স্থানীয় সরকার অধিদফতরের উপপরিচালক আজহারুল ইসলামকে প্রধান করে এ কমিটি গঠন করে জেলা প্রশাসন। একই সঙ্গে আগামী ৩ কার্যদিবসের মধ্যে প্রতিবেদন দাখিল করার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। 

     

    এছাড়া জেলা প্রশাসক ডা. রহিমা খাতুন নিহতের প্রত্যেকের পরিবারকে ২০ হাজার টাকা করে দেওয়া এবং আহতদের চিকিৎসার ব্যয় বহন করা হবে ঘোষণা দিয়েছেন।

    /এস এ. আকাশ

    • সর্বশেষ
    • সর্বাধিক পঠিত
    শনি
    রোব
    সোম
    মঙ্গল
    বুধ
    বৃহ
    শুক্র

    সম্পাদক: দিদারুল ইসলাম
    প্রকাশক: আজিজুর রহমান মোল্লা
    মোবাইল নাম্বার: 01711121726
    Email: bartajogot24@gmail.com & info@bartajogot24.com