আজ শনিবার, ১০, ডিসেম্বর ২০২২

| কাল
০২ঃ ২৯ঃ ০৯ |

Logo
সর্বাধিক পঠিত | সর্বশেষ | গ্যালারী |

তিন মাসে বাণিজ্য ঘাটতি ৭৫৫ কোটি ডলার

বার্তাজগৎ২৪ ডেস্ক :

প্রকাশ: শুক্রবার ০৪ নভেম্বর, ২০২২ - ০৫:২৮ এএম

চলতি (২০২২-২৩) অর্থবছরের প্রথম তিন মাসে (জুলাই-সেপ্টেম্বর) বাণিজ্য ঘাটতি দাঁড়িয়েছে প্রায় ৭৫৫ কোটি ডলার। চলতি হিসাব ও সামগ্রিক লেনদেনেও ঘাটতি হয়েছে। আজ বৃহস্পতিবার বাংলাদেশ ব্যাংকের বৈদেশিক লেনদেনের চলতি ভারসাম্যের হালনাগাদ প্রতিবেদনে এ তথ্য উঠে এসেছে।

এ পরিস্থিতি থেকে উত্তরণের জন্য আমদানী-রপ্তানীর ভারসাম্য রক্ষায় আমদানিতে লাগাম টানা, কর্মকর্তাদের বিদেশ ভ্রমণ, ওয়ার্কশপ বন্ধ, অপেক্ষাকৃম কম গুরুত্বপূর্ণ প্রকল্প বন্ধ রাখাসহ বেশ কিছু পদক্ষেপ নিয়েছে কেন্দ্রীয় ব্যাংক। কিন্তু যাবতীয় উদ্যোগের কোন ফল আসেনি। ফলস্বরুপ বাণিজ্য ঘাটতি থেকে কোনভাবেই বেড় হতে পারছে না দেশে।

আর্থিক খাত সংশ্লিষ্টরা বলছেন, রপ্তানির তুলনায় আমদানি বেশি হওয়ায় ঘাটতি হচ্ছে। এ ছাড়া বিশ্ববাজারে জ্বালানিসহ সব ধরনের পণ্যের মূল্য ঊর্ধ্বমুখী এবং সে অনুপাতে রেমিট্যান্স প্রবাহ না থাকায় বহির্বিশ্বের সঙ্গে বাণিজ্য ঘাটতিতে পড়ছে বাংলাদেশ।

বাংলাদেশ ব্যাংকের প্রতিবেদন অনুযায়ী, চলতি অর্থবছরের প্রথম তিন মাসে (জুলাই- সেপ্টেম্বর) রপ্তানি হয়েছে ১১৮০ কোটি ডলার, যা আগের অর্থবছরের একই সময়ের চেয়ে বেড়েছে ১১ দশমিক ৮৯ শতাংশ।

অন্যদিকে এ সময় আমদানি হয়েছে ১ হাজার ৯৩৪ কোটি ডলার। গত বছরের একই সময় থেকে আমদানি বেড়েছে ১১ দশমিক ৭০ শতাংশ। ফলে বাণিজ্য ঘাটতি দাঁড়িয়েছে ৭৫৪ কোটি ৮০ লাখ ডলারে, যা গত অর্থবছরের একই সময়ের চেয়ে ১১ দশমিক ৪১ শতাংশ বৃদ্ধি পেয়েছে। গত অর্থবছরের জুলাই-সেপ্টেম্বরে ঘাটতি ছিল ৬৭৭ কোটি ডলার।

এর আগে গেল ২০২১-২২ অর্থবছরে (জুলাই-জুন) দেশে বাণিজ্য ঘাটতি ৩ হাজার ৩২৫ কোটি ডলার, যা ইতিহাসের সর্বোচ্চ। একই সময় বৈদেশিক লেনদেনের চলতি হিসাবের ভারসাম্যের ঘাটতিও সাড়ে ১৮ বিলিয়ন ডলার ছাড়িয়েছিল। তার আগে ২০২০-২১ অর্থবছরের এ বাণিজ্য ঘাটতির অংক ছিল ২ হাজার ৩৭৭ কোটি ডলার।

প্রতিবেদন অনুযায়ী, জুলাই-সেপ্টেম্বর সময়ে সেবা খাতের বাণিজ্য ঘাটতিও বেড়েছে। এ সময় সেবা খাতে বাংলাদেশ আয় করেছে ২২৩ কোটি ডলার। অন্যদিকে সেবা খাতে দেশের ব্যয় হয়েছে ৩৩৩ কোটি ডলার। সেবা খাতের ঘাটতি দাঁড়িয়েছে ১১০ কোটি ডলার। আগের অর্থবছরের একই সময়ে ঘাটতি ছিল ৬০ কোটি ডলার। চলতি হিসাবের ভারসাম্যেও (কারেন্ট অ্যাকাউন্ট ব্যালেন্স) ঘাটতিতে পড়েছে দেশ। চলতি অর্থবছরের প্রথম তিন মাস (জুলাই- সেপ্টেম্বর) এই ঘাটতির (ঋণাত্মক) অংক দাঁড়িয়েছে ৩৬১ কোটি ডলার। আগের অর্থবছরে একই সময়ে ঘাটতি ছিল ২৫৪ কোটি ডলার।

এছাড়া চলতি বছরের জুলাই-সেপ্টেম্বর সামগ্রিক লেনদেনে (ওভার অল ব্যালান্সেস) ঘাটতির পরিমাণ দাঁড়িয়েছে ৩৪৪ কোটি ডলার, যা ২০২১-২২ অর্থবছরের একই সময়ে এই সূচকে ৮১ কোটি ডলার ঘাটতি ছিল। আলোচ্য সময়ে ১১৫ কোটি ডলার বিনিয়োগ করেছে বৈদেশিক উদ্যোক্তারা। গত অর্থবছরের একই সময়ে এর পরিমাণ ছিল ৯০ কোটি ডলার। প্রতিবেদনের তথ্য অনুযায়ী, নতুন অর্থবছরের প্রথম তিন মাস (জুলাই-সেপ্টেম্বর) দেশে ৫৬৭ কোটি ডলারের সমপরিমাণ রেমিট্যান্স দেশে এসেছে। যা গত বছরের একই সময়ের চেয়ে ৪ দশমিক ৯০ শতাংশ বেশি।

সর্বমোট শেয়ারঃ ১০০
Facebook Twitter WhatsApp Messanger
আমাদের অ্যাপ

স্বত্ব © ২০২২ বার্তাজগৎ২৪ Design & Developed By softicode