• মঙ্গলবার, ২৭ জুলাই ২০২১ , ১১ শ্রাবণ ১৪২৮
  • আর্কাইভ

মঙ্গলবার, ২৭ জুলাই ২০২১ , ১১ শ্রাবণ ১৪২৮

অক্সিজেনের অভাবে এক হাসপাতালেই মৃত্যু হয়েছে ৬৩ করোনা রোগীর

দিদারুল ইসলাম
প্রকাশিত :সোমবার, জুলাই ৫, ২০২১, ০৬:১৪

অক্সিজেনের অভাবে এক হাসপাতালেই মৃত্যু হয়েছে ৬৩ করোনা রোগীর

ভয়েস অব আমেরিকার এক প্রতিবেদনে জানা গেছে, অক্সিজেনের যোগান দিতে দেরি হওয়ার কারণে এক হাসপাতালেই মৃত্যু হয়েছে ৬৩ জন অসহায় করোনা রোগীর।
ঘটনাটি ঘটেছে ইন্দোনেশিয়ার ড. সারজিত জেনারেল হাসপাতালে।

হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, অক্সিজেনের যোগান দেওয়ার জন্য তারা সর্বাত্মক চেষ্টা করেছে। কিন্তু শেষমেশ তাদের সেই চেষ্টা ব্যর্থ হওয়ার কারণে প্রাণ হারাতে হয়েছে ৬৩ জন করোনা রোগীকে!


প্রতিবেদন অনুযায়ী সিলিন্ডার পাল্টাতে কালক্ষেপণ হওয়ার কারণে এমনটি ঘটেছে।হাসপাতালের পরিচালক রুকমিনো শিষ্যশান্ত রোববার এক বিবৃতিতে গণমাধ্যমকে বলেন, অবশেষে আমরা অক্সিজেন সিলিন্ডারের ব্যবস্থা করতে পেরেছিলাম। ইয়গ্যাকারতা পুলিশ প্রশাসনও আমাদের ১০০টি সিলিন্ডার দিয়েছিল। কিন্তু ততক্ষণে যা হবার হয়ে গেছে। অনেক বেশি দেরি হয়ে গেছে আমাদের।

জ্যামিতিক হারে করোনা রোগী বৃদ্ধি পাওয়ার কারণে হিমশিম খাচ্ছে ইন্দোনেশিয়া সরকার। হাসপাতালগুলোর আইসিইউতে বাড়ছে করোনা রোগীর ভিড়, কোয়ারেন্টাইন সেন্টারগুলোকে আবারও ঢেলে সাজাতে হচ্ছে। ইতোমধ্যে মৃত রোগীদের সৎকারের জন্য জাকার্তায় তিনটি কবরস্থানও স্থাপন করা হয়েছে। জাকার্তা ও আশপাশের শহরের বাসিন্দাদের অক্সিজেনের জন্য সিলিন্ডার হাতে দিনরাত লাইনে দাঁড়িয়ে থাকতে দেখা গেছে।


সারা পৃথিবীর বিভিন্ন দেশের মধ্যে করোনা রোগী সামলাতে হিমশিম খেতে হচ্ছে সরকারকে।
লাফিয়ে বৃদ্ধি পাচ্ছে মৃত্যু এবং আক্রান্ত সংখ্যা। করোনা রোগের সঙ্গে পরিচয়ে ইতিমধ্যে দীর্ঘ সময় পার হলেও মানুষের মধ্যে তেমন কোন সচেতনতা দেখা যাচ্ছে না।

জনগণের মধ্যে সচেতনতা না থাকার কারণে আবারও বিপর্যয়ের মুখে পড়েছে বাংলাদেশ। দিনকে দিন বৃদ্ধি পাচ্ছে করোনায় আক্রান্ত ও মৃত্যুর সংখ্যা। খুব দ্রুত সময়ের মধ্যে জনগণকে সচেতন করার পাশাপাশি কঠোর সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা না গেলে বাংলাদেশের হাসপাতাল গুলোর অবস্থা ও হবে মৃত্যুপুরী।

/রাজিব আহমেদ

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
শনি
রোব
সোম
মঙ্গল
বুধ
বৃহ
শুক্র

সম্পাদক: দিদারুল ইসলাম
প্রকাশক: আজিজুর রহমান মোল্লা
মোবাইল নাম্বার: 01711121726
Email: bartajogot24@gmail.com & info@bartajogot24.com