আজ বৃহস্পতিবার, ০৯, ফেব্রুয়ারী ২০২৩

| কাল
০২ঃ ৫৪ঃ ৩৬ |

Logo
সর্বাধিক পঠিত | সর্বশেষ | গ্যালারী |

মিছিল-স্লোগানে মুখরিত গোলাপবাগ মাঠ

নিজস্ব প্রতিবেদক:

প্রকাশ: শনিবার ১০ ডিসেম্বর, ২০২২ - ০১:০৪ এএম

রাত পোহালেই রাজধানীতে বিএনপির বিভাগীয় সমাবেশ। এ কারণে কয়েকদিন আগে থেকেই সারাদেশ থেকে নেতাকর্মীরা ঢাকা আসতে শুরু করেছে। যতই সময় যাচ্ছে ততই নেতাকর্মীদের ভিড় জমছে। মিছিল-স্লোগানে মুখরিত হয়ে উঠেছে গোলাপবাগ মাঠ। শনিবার (১০ ডিসেম্বর) সকাল ১১টায় এ মাঠেই বিএনপির ঢাকা বিভাগীয় গণসমাবেশ হবে।

বিকেলে অনুমতি পাওয়ার পর থেকেই ঢাকার বিভিন্ন প্রান্ত থেকে ছুটে আসতে থাকে বিএনপির নেতাকর্মীরা। তারা এসে বিভিন্ন শ্লোগান দিচ্ছেন। বেগম খালেদা জিয়ার মুক্তি চাই, তারেক রহমানের মামলা প্রত্যাহার করতে হবে, করতে হবে। ভোট চোর সরকার, আর নাই দরকার। সরকার বিরোধী অনেক স্লোগান দিচ্ছেন আগত নেতাকর্মীরা।

সমাবেশের মাঠে কথা হয় পটুয়াখালীর সদরের ৫ নং কমলাপুর ইউনিয়ন বিএনপির কয়েকজন নেতাকর্মীর সাথে। তারা জানায়, সমাবেশের জন্য চারদিন আগেই তারা ঢাকা এসেছেন। হোটেলে পুলিশের রেড পরতে পারে এই ভয়ে মিরপুরে চুন্নু নামের গণপূর্তের এক প্রকৌশলীর দায়িত্বে একটা বাসায় উঠেছেন৷ পটুয়াখালী থেকে আজ রাতের মধ্যে আরও কয়েক হাজার নেতাকর্মী লঞ্চ এবং বাস যোগে ঢাকায় পৌঁছাবে।

খাওয়া দাওয়া ও যাতায়াতে কোন সমস্যা হচ্ছে কি না, এমন প্রশ্নের জবাবে তারা জানান, ঐ প্রকৌশলী নিজ দায়িত্বে কয়েকটি মাইক্রোবাস ও বাস ভাড়া করে দিয়েছেন। তবে খাওয়া দাওয়ায় একটু সমস্যা হচ্ছে।

প্রতিবেদকের কথা হয় কুড়িগ্রাম থেকে আসা এক কর্মীর সাথে। তিনি নয়া বার্তাজগৎ২৪ জানান, পাঁচ দিন আগেই তিনি ঢাকায় এসেছেন। ঢাকার সমাবেশে যোগ দিতে। অনেক দূরের পথ তারপরও অনেক নেতাকর্মী কুড়িগ্রাম থেকে ঢাকায় এসেছেন বলে জানান তিনি।

বগুড়া সারিকান্দ্দি বিএনপির উপজেলা সভাপতি আহসান তৈয়ব জাকির ঢাকায় এসেছেন আট দিন আগে, তিনি বলেন, এখানে আসার একমাত্র কারণ বেগম খালেদা জিয়াকে মুক্তির জন্য। তারেক রহমানের মামলা প্রত্যাহার করতে হবে। মিথ্যা মামলা দিয়ে কোনোভাবেই বিএনপি নেতাকর্মীদের থামানে যাবে না। আমরা জীবন দিয়ে হলেও দেশে গণতন্ত্র প্রতিষ্ঠা করব।

সন্ধ্যা সাড়ে ৭টার মধ্যে পুরো মাঠ কানায় কানায় পূর্ণ হয়ে গেছে।

১০ ডিসেম্বর সমাবেশ করার জন্য বিএনপি শুরু থেকেই নয়াপল্টনের সড়ক ব্যবহারের দাবি জানিয়ে আসছিল। আর সরকার শুরু থেকেই বলে আসছিল নয়াপল্টনে সমাবেশ করতে দেয়া হবে না। বিএনপিকে সমাবেশ করতে হবে ঐতিহাসিক সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে। তবে সোহরাওয়ার্দীর বিষয়ে শুরু থেকেই আপত্তি জানিয়ে আসছিল বিএনপি। তারা আরামবাগ ও সেন্ট্রাল গভর্নমেন্ট স্কুলের মাঠের প্রস্তাব দিলেও পুলিশ তাতে রাজি হয়নি। দফায় দফায় আলোচনা শেষে রাজধানীর গোলাপবাগে সমাবেশ করার অনুমতি পায় বিএনপি।

বার্তাজগৎ২৪/০৯ ডিসেম্বর/বার্তাজগৎ ডেস্ক

সর্বমোট শেয়ারঃ
Facebook Twitter WhatsApp Messanger
আমাদের অ্যাপ

স্বত্ব © ২০২২ বার্তাজগৎ২৪ Design & Developed By softicode