• বুধবার, ১৪ এপ্রিল ২০২১ , ১ বৈশাখ ১৪২৮
  • আর্কাইভ

বুধবার, ১৪ এপ্রিল ২০২১ , ১ বৈশাখ ১৪২৮

তীব্র যানজট ও লোকারণ্য ছিল দ্বিতীয় দিনের লকডাউন

দিদারুল ইসলাম:
প্রকাশিত :মঙ্গলবার, এপ্রিল ৬, ২০২১, ০৬:৪৭

  • চট্টগ্রাম শহরে লকডাউনে রাস্তার অবস্থা

    সকল ধরনের যানবাহনই রাস্তায়! বন্ধ ছিল শুধুমাত্র শপিং কমপ্লেক্স গুলো। কাগজে কলমে লকডাউন থাকলেও সেই লকডাউনে কোন ধরনের সাড়া ছিলনা সাধারণ জনগণের।


    করোনাভাইরাসের সংক্রমণ রোধে সারাদেশে এক সপ্তাহের লকডাউন ঘোষণা করেছে সরকার। সেই লকডাউনের সময়সীমা শুরু হয় ৫ এপ্রিল ভোর ৬টা থেকে। লকডাউন বলবৎ থাকার কথা রয়েছে ১১ এপ্রিল মধ্যরাত পর্যন্ত।




    মঙ্গলবার (৬ এপ্রিল) লকডাউনের দ্বিতীয় দিন।
    চট্টগ্রাম নগরীতে লকডাউনের চিত্র ছিল সম্পূর্ণ ভিন্ন।
    নগরীর বিভিন্ন মোড়ে তীব্র যানজট এবং লোকারণ্য দেখা গেছে।


    অফিসের জরুরী প্রয়োজনে নিয়োজিত স্টিকার লাগানো বাসগুলো সারাদিন ব্যস্ত ছিল লোকাল যাত্রী পরিবহনে। রাস্তায় দেখা গেছে সব ধরনের পরিবহন।


    বিভিন্ন ধরনের অফিস,কারখানা ও ব্যাংক খোলা থাকার কারণে ভোগান্তির পাশাপাশি পরিবহন সংকটে পড়েছে অফিসগামী সাধারণ যাত্রীরা। তীব্র ক্ষোভ জানিয়ে তারা বলেন, অফিস আদালত সব খোলা রেখে লকডাউন নাম দিয়ে গণপরিবহন বন্ধ রাখার কোন মানে হয় না। সরকারের উচিত খুব শীঘ্রই গণপরিবহন চলাচলের ব্যবস্থা করে দেয়া। অন্যথায় সারাদেশের সকল কিছু লকডাউনের আওতায় নিয়ে আসা।


    যানবাহন সংকটের কারণে প্রতিটি মোড়ে পথচারীদের ভিড় ছিল চোখে পড়ার মতো! প্রতিদিন লাফিয়ে লাফিয়ে আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা বৃদ্ধি পেলেও জনমনে কোন ধরনের আতংক কিংবা সচেতনতা দেখা যাচ্ছে না।

    নগরীর অনেক ব্যবসায়ীরা জানিয়েছেন, শুধুমাত্র বিশেষ কিছু শ্রেণি পেশার মানুষের জন্য লকডাউন ঘোষণা করে সরকার অমানবিক সিদ্ধান্ত নিয়েছে।
    সাধারণ জনগণের পাশে থেকে বৃহত্তর স্বার্থে লকডাউন এর বিষয়টি পুনর্বিবেচনার জন্য তারা সরকারের প্রতি আহ্বান জানান।


    • সর্বশেষ
    • সর্বাধিক পঠিত
    শনি
    রোব
    সোম
    মঙ্গল
    বুধ
    বৃহ
    শুক্র

    সম্পাদক: দিদারুল ইসলাম
    প্রকাশক: আজিজুর রহমান মোল্লা
    মোবাইল নাম্বার: 01711121726
    Email: bartajogot24@gmail.com & info@bartajogot24.com