২৫ জুন জাতি হিসেবে সগৌরবে দাড়ানোর এক মাহেন্দ্রক্ষণ

বার্তাজগৎ২৪/ এমএ
বার্তাজগৎ২৪ ডেস্ক : বার্তাজগৎ২৪ ডেস্ক :
প্রকাশিত: ৪:৪১ অপরাহ্ন, ২৫ জুন ২০২২ | আপডেট: ৬:৪১ পূর্বাহ্ন, ২৫ জুন ২০২২
এস এম শামীম

আজ পদ্মা সেতুর উদ্বোধনী দিন। উপর আল্লাহর রহমতে স্বাধীনতা রক্ষায় বঙ্গবন্ধু কন্যা মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর এক অনবদ্য সৃষ্টি এই স্বপ্নের পদ্মা সেতু। পাপারাজ্জিদের মুখে চুন কালি মেখে বাংলাদেশ প্রমাণ করেছে আমরাও পারি। জাতি হিসেবে সগৌরবে দাড়ানোর এক অপূর্বক্ষণ আজ। স্বাধীনতা পরবর্তী এক বিশাল ইতিহাস আজকের এই দিন। কোটি কোটি মানুষের ভাগ্যের চাকা ঘুরবে এই সেতুর কারণে। সময়কে টাকার মূল্যে মূল্যায়ন করলেই আপনি বুঝতে পারবেন, এই টোল কোন বিষয়ই না, জীবনযাত্রার মান বহুগুণে বেড়ে যাবে। আগে যেখানে ০২ ঘন্টায় এই পদ্মা পার হতেন, এখন হবেন ৬/৭ মিনিটে। পচনশীল দ্রব্যগুলো অতি দ্রুত চলে আসবে কারওয়ান বাজারসহ ঢাকার বড়ো বড়ো পাইকার মার্কেটে, হাজার হাজার কোটি টাকা বাচবে এগুলো নষ্ট না হওয়ায়। যে লোককে বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান লাখ টাকা বেতন দিচ্ছেন, তার ০২ ঘন্টা সময় বাচলে, সে এই সময়টাকে তার কাজে সদ্ব্যবহার করতে পারবেন এবং দেশ এগিয়ে যাবে দুর্বার গতিতে।

একবার শুধু এই ০২ ঘন্টা সময় নিয়ে ভাবেন? যারা ব্যাবসায়ী, চাকরিজীবী, সমাজসেবী, সাংস্কৃতিক কর্মী, রাজনীতিবিদ- যাদের নিয়মিত যাতায়াত এই সেতু দিয়ে হবে, প্রতিদিন যাওয়া আসা মিলিয়ে ০১ জন লোকের ০৪ ঘন্টা সময় বাচলে, মাসে আপনার ৩০×৪=১২০ ঘন্টা সময় বাচবে।আপনার ক্লান্তি কম হওয়ায় এবং সেতুর মনোরম পরিবেশ উপভোগ করতে করতে যাওয়া আসায় আপনি অনেক রিফ্রেশড থাকবেন, ফলে পরবর্তী সময়টুকু আপনি আপনার কাজে অধিক মনযোগী হতে পারবেন এবং পরিপূর্ণ উপযোগিতা নিশ্চিত হবে আপনার শ্রম এবং মেধার। শুনেছি প্রতিদিন ৭৫০০০ গাড়ি (বাসসহ) চলবে এই সেতু দিয়ে। তাহলে বাসের সংখ্যা যদি আনুমানিক ২০,০০০ হয়; ২০০০০× ৫২= ১০,৪০০০০ জন। বাকি গাড়িগুলোতে এভারেজ ০৩ জন করে ধরলে ৫৫,০০০× ৩ = ১,৬৫০০০ জন। তার মানে দৈনিক আনুমানিক ১০,৪০,০০০ জন+ ১,৬৫,০০০ জন =১২,০৫,০০০ জন মানুষ এই সেতু দিয়ে পার হবেন। এবার ১২,০৫,০০০ জন× ৪ ঘন্টা = ৪৮,২০,০০০ ঘন্টা সেইভ হচ্ছে প্রতিদিন। এবারে একটু মাসের হিসাব করি ৪৮,২০,০০০ঘন্টা× ৩০ দিন = ১৪৪,৬০০,০০০ ঘন্টা। একটু বছরের হিসাব করি; ১৪৪,৬০০,০০০ ঘন্টা ×১২ মাস = ১,৭৩৫,২০০,০০০ কর্মঘণ্টা। এবারে এই কর্মঘণ্টাকে যদি টাকার মূল্যে মূল্যায়ন করি তাহলে আপনি পাগল হয়ে যাবেন। যারা বলেন "আমার এক মিনিট সময়ের দাম ০১ লাখ টাকা।" দেখেন এবার গুণ দিয়ে কত টাকা আসে। আমাদের অনেক বড় বড় ব্যবসায়ী আছেন আসলেই যাদের ০১ মিনিট সময়ের মূল্য ০১ লাখ টাকা হতেই পারে।এভাবে ব্যসায়িক আয়, বেতন, পারিশ্রমিক কে কর্মঘণ্টা দিয়ে গুণ করে দেখেন কত টাকা হয়!

অর্থনীতির ছাত্র হিসেবে  How to convert time to money, more or less I know. যদিও ছাত্র হিসেবে আমি অতটা ভালোনা।শুধু এটুকু বুঝি যে, হাজার হাজার কোটি টাকা সেইভ হবে প্রতিমাসে, প্রতি বছরে আমাদের।
"এই সেতু নির্মাণের টাকা কতদিনে উঠবে, এবার আপনিই হিসেব করে নিবেন প্লিজ।" 

স্বপ্ন পূরণ করায়, ধন্যবাদ মাননীয় প্রধানমন্ত্রী।


এস, এম, শামীম
অতিরিক্ত উপ-পুলিশ কমিশনার, ট্রাফিক তেজগাঁও বিভাগ, ডিএমপি, ঢাকা।

বার্তাজগৎ২৪/ এমএ