কর্মীদের ভিকটিম বানিয়ে সিম্প্যাথি কার্ড খেলার অপচেষ্টা করছে বিএনপি: সায়েম খান

বার্তাজগৎ২৪/ এমএ
বার্তাজগৎ২৪ ডেস্ক: বার্তাজগৎ২৪ ডেস্ক:
প্রকাশিত: ৬:৩৮ অপরাহ্ন, ০৫ অগাস্ট ২০২২ | আপডেট: ৮:১৬ অপরাহ্ন, ১১ অগাস্ট ২০২২
সায়েম খান

বাংলাদেশের রাজনীতির ঐতিহাসিক গতিপথ বদলানোর চেষ্টা চলছে। নৈরাজ্যকর রাজনীতির দেবতা দ্বারা আশীর্বাদপুষ্ট বিএনপি একই মঞ্চে ভিন্ন নাটকের অবতারণা করে চলেছে। যা শুধুমাত্র উদ্ভটই নয়, কুৎসিতও বটে। যে কোন উপায়ে রাষ্ট্রক্ষমতা দখলের অপচেষ্টায় লিপ্ত বিএনপি কখনোই বুঝতে পারেনি এদেশে জনকল্যাণের রাজনীতি আর তাদের ক্ষমতা দখল করতে চাওয়ার অপরাজনীতি সর্বদাই বিপরীতমুখী। ফলস্বরূপ জনমনস্তত্ত্বে বিএনপির কোন আকর্ষণ নেই বললেই চলে। গত এক যুগেরও বেশি সময় ধরে দেখা গেছে বিএনপি ক্ষমতায় যাওয়ার জন্য মানুষ হত্যা করেছে। যার সর্বোৎকৃষ্ট উদাহরণ ২০১৪ সালের ৫ জানুয়ারিতে অনুষ্ঠিত নির্বাচন বানচালের লক্ষ্যে অগ্নিসন্ত্রাসের মাধ্যমে মানুষ পুড়িয়ে মেরেছে। বিএনপির পৈশাচিক রূপ জনগনের কাছে যতই স্পষ্ট হয়ে ওঠে ততই তাদের অপকৌশল ভোতা হতে থাকে। এখন বিএনপি তার কর্মীদের রক্তের উপর দাঁড়িয়ে ক্ষমতার রাজনীতি করার অপচেষ্টা চালাচ্ছে। এতোদিন বাংলাদেশের জনগণকে ভয় দেখানোর অপচেষ্টা করে তারা ব্যর্থ। কোনোভাবেই জননেত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বাংলার জনগণের ঐক্যের দুর্ভেদ্য দেয়ালে ফাটল ধরাতে না পেরে নিজেদের কর্মীদের ভিকটিম বানিয়ে সিম্প্যাথি কার্ড খেলার চেষ্টা করছে বিএনপি। এদেশের সচেতন জনগণ মাত্রই জানে বিএনপি কখনোই রাজনীতিতে ভিকটিম নয় বরং দেশবিরোধী জাতিক-আন্তর্জাতিক চক্রের ষড়যন্ত্রের মাধ্যমে গড়ে ওঠা বেনিফেশিয়ারি গ্রুপ, যারা এদেশের স্বাধীনতা ও মহান মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় বিশ্বাসী মানুষকে ভিকটিম বানিয়েছে। সংখ্যালঘুদের ভালনেয়ারেবল গ্রুপে পরিণত করেছে। তাদের প্রদর্শিত সিম্প্যাথি কার্ডে জনগণের সিম্প্যাথি না থাকলেও সতর্ক দৃষ্টি আছে।

বাংলাদেশের জনগণ ভালো করেই জানে, তাদের আনন্দ-বেদনা-মিলন ও বিরহ-সংকটে যে রাজনৈতিক প্রতিষ্ঠান ওতোপ্রোতভাবে জড়িত তার নাম বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ। সমগ্র বাঙালি জাতির অবিভাজিত বোধের কেন্দ্রবিন্দু বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সভাপতি ও গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের মাননীয় প্রধানমন্ত্রী দেশরত্ন জননেত্রী শেখ হাসিনা এমপি। তিনি কোনো দুর্যোগে হাল ছাড়তে রাজি নন। তিনি দুর্যোগে সুযোগ সৃষ্টি করেন; সংকটে সম্ভাবনার গতিপথ নির্ধারণ করতে জানেন। তাই যে কোনো সংকটে দেশের জনগণ তাঁর দিকে চেয়ে থাকে। কারণ আতঙ্কের কালে শেখ হাসিনা অভয়ের সংকেত। দেশের জনগণ ভালো করেই জানে জননেত্রী  শেখ হাসিনা ব্যতীত সংকটকালে জাতিকে পথ দেখানোর দ্বিতীয় নেতৃত্ব তাদের সামনে নেই। সুতরাং সফল নেতৃত্ব শেখ হাসিনার আহ্বানে দেশের জনগণ সংকট মোকাবিলার জন্য  প্রস্তুতি গ্রহণ ব্যাতিরেকে কোন অপশক্তি ফাঁদে পা দিয়ে দেশকে খাদের কিনারায় নেবে না।

সায়েম খান
উপ-দপ্তর সম্পাদক, বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ।

বার্তাজগৎ২৪/ এমএ