গুচ্ছের মানবিক বিভাগের ভর্তি পরীক্ষা আগামীকাল, লড়বে ৯৫ হাজার জন

বার্তাজগৎ২৪/কেএইচ
তানজিল আহম্মেদ, জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিনিধি: তানজিল আহম্মেদ, জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিনিধি:
প্রকাশিত: ৫:৫৮ অপরাহ্ন, ১২ অগাস্ট ২০২২ | আপডেট: ১১:৪৯ পূর্বাহ্ন, ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২২
ফাইল ছবি

গুচ্ছভুক্ত ২২ টি সাধারণ ও বিজ্ঞান প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের স্নাতক প্রথম বর্ষের মানবিক বিভাগে (বি ইউনিট) ভর্তি পরীক্ষা আগামী শনিবার (১৩ আগস্ট) অনুষ্ঠিত হবে। সারাদেশে ২৯ কেন্দ্রে এই বিভাগে মোট ৯৫ হাজার ৬৩৭ জন শিক্ষার্থী ভর্তিযুদ্ধে অংশ নিবেন।

এরই মধ্যে কেন্দ্রেগুলোতে পরীক্ষা নেয়ার সব রকম প্রস্তুতি সম্পন্ন করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন গুচ্ছ ভর্তি পরীক্ষার টেকনিক্যাল কমিটির সভাপতি এবং চাঁদপুর বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. নাছিম আখতার।

উপাচার্য ড. নাছিম আখতার বলেন, ১৯ বিশ্ববিদ্যালয় কেন্দ্রের আওতায় কিছু উপকেন্দ্র মিলে মোট ২৯ কেন্দ্রে পরীক্ষা হবে। প্রশ্ন, সিট প্লান, উত্তরশিট সব কেন্দ্রে পাঠানো হয়েছে। সকল কেন্দ্রে কঠোর নিরাপত্তা ব্যবস্থা নিশ্চিত করতে ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে। এছাড়া গত বিজ্ঞান ইউনিটে প্রশ্নপত্রে যে ঘিঞ্জি ভাব ছিল তা সামনের পরীক্ষায় থাকবে না বলে জানিয়েছেন তিনি।

এদিকে জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসে এ পরীক্ষায় অংশ নিচ্ছে ১১ হাজার ৯২৭ জন। এ বিশ্ববিদ্যালয় ছাড়াও বাইরের তিনটি উপকেন্দ্র রাজধানীর সিদ্ধেশ্বরী গার্লস কলেজে ৪ হাজার ৫৪৬ জন, উদয়ন উচ্চ মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে ১ হাজার ৬৯৬ জন, উইস লিটল ফ্লাওয়ার স্কুল এন্ড কলেজে ৩ হাজার ৬০০ জন শিক্ষার্থী পরীক্ষা দিবে। জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের তত্ত্বাবধানে এ তিন কেন্দ্রে ভর্তি পরীক্ষা হবে।

গতকাল বৃহস্পতিবার (১১ আগস্ট) বেলা ১১টায় সার্বিক প্রস্তুতি নিয়ে প্রেস ব্রিফিং করেন জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় কলা অনুষদের ডিন অধ্যাপক ড. মো. রইছ উদ্দীন।

তিনি বলেন, পরীক্ষার সকল কাগজপত্র আমরা কেন্দ্রসমূহে প্রেরণ করেছি। পরীক্ষার দিন ভর্তিচ্ছুদের সহায়তা দিতে বিএনসিসি রোভার স্কাউট, রেঞ্জার ইউনিট সার্বক্ষণিক দায়িত্ব পালন করবে। কেন্দ্রের বাইরে আইনশৃঙ্খলা রক্ষায় এবং পরীক্ষার্থীদের সার্বিক নিরাপত্তা নিশ্চিতকরণে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টরের সাহায্যে পুলিশের ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষকে চিঠির মাধ্যমে অবগত করা হয়েছে। এছাড়া গত পরীক্ষায় প্রশ্নপত্রের ফন্ট সাইজ নিয়ে কথা উঠেছিলো। আমরা এবিষয়ে সেন্ট্রাল কমিটিকে জানিয়েছি। অন্যদিকে গত বিজ্ঞান ইউনিটের পরীক্ষায় মোবাইল, ঘড়ি, ডিভাইস নিয়ে কেন্দ্রে প্রবেশ করতে না পারলেও এ পরীক্ষায় পারবে না বলে সর্বোচ্চ নির্দেশনা দেয়া আছে।

এদিকে গুচ্ছভুক্ত বিশ্ববিদ্যালয়গুলো হলো- জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়, ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়, শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়, খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়, হাজী মোহাম্মদ দানেশ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়, মাওলানা ভাসানী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়, পটুয়াখালী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়, নোয়াখালী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়, কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়, জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলাম বিশ্ববিদ্যালয়, যশোর বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়, বেগম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয়, পাবনা বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়, বরিশাল বিশ্ববিদ্যালয়, রাঙ্গামাটি বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়, রবীন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয়, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ডিজিটাল ইউনিভার্সিটি, শেখ হাসিনা বিশ্ববিদ্যালয়, বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিব বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বিশ্ববিদ্যালয় এবং চাঁদপুর বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়।

উল্লেখ্য, গত শনিবার (৩০ জুলাই) বেলা ১২টা থেকে ১টা পর্যন্ত সারাদেশের ১৯ কেন্দ্রের ৫৭টি ভেন্যুতে একযোগে গুচ্ছের ‘ক’ ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়। আগামী ১৩ আগস্ট মানবিক অনুষদভুক্ত 'বি' ইউনিট এবং ২০ আগস্ট বাণিজ্য অনুষদভুক্ত  'সি' ইউনিটের পরীক্ষার মধ্য দিয়ে দ্বিতীয়বারের মত আয়োজিত গুচ্ছ ভর্তি পরীক্ষা শেষ হবে।

বার্তাজগৎ২৪/কেএইচ