বিয়ের প্রলোভনে প্রেমিকাকে নৌকায় তুলে ধর্ষণ,প্রেমিক আটক

নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ৭:৪৯ অপরাহ্ন, ২৫ জুলাই ২০২১ | আপডেট: ৫:৩১ পূর্বাহ্ন, ২৮ জুন ২০২২

বিয়ের প্রলোভনে প্রেমিকাকে নৌকায় তুলে ধর্ষণ,প্রেমিক আটক

কুড়িগ্রামের চিলমারী উপজেলায় বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে এক তরুণীকে নৌকায় তুলে নিয়ে ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে। এ ঘটনায় সফিকুল ইসলাম (৩৫) নামের এক যুবককে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

রোববার (২৫ জুলাই) ভোরে উপজেলার দ্বীপচরের ইউনিয়ন অষ্টমীচরের পশ্চিম ডাটিয়ারচর থেকে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়। এর আগে শনিবার (২৪ জুলাই) রাত সাড়ে ১২টার দিকে ভুক্তভোগী তরুণী বাদী হয়ে সফিকুল ইসলাম এবং তার সহযোগীসহ ৫ জনকে আসামি করে চিলমারী থানায় মামলা করেন

মামলার এজাহার সূত্রে জানা যায়, ভুক্তভোগী তরুণীর সঙ্গে সফিকুল ইসলামের প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে। গত ২২ জুলাই সন্ধ্যা সাড়ে ৬টার দিকে সফিকুল বিয়ের কথা বলে ভুক্তভোগীকে বাড়ি থেকে ডেকে নিয়ে নৌকায় তোলেন। এক পর্যায়ে সেখানেই তরুণীকে ধর্ষণ করেন। পরে একই দিন রাত ৯টার দিকে কৌশলে তাকে বাড়ির পাশে নামিয়ে দিয়ে পালিয়ে যান।

এ ঘটনায় শনিবার (২৪ জুলাই) রাত সাড়ে ১২টার দিকে ভুক্তভোগী তরুণী বাদী হয়ে সফিকুল ইসলাম এবং তার সহযোগীসহ ৫ জনকে আসামি করে চিলমারী থানায় মামলা করেন। পরে রোববার (২৫ জুলাই) ভোরে পুলিশ অভিযান চালিয়ে সফিকুলকে গ্রেপ্তার করে।

চিলমারী মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. আনোয়ারুল ইসলাম জানান, ওই এলাকাটি ঢুষমারা থানাধীন। এ কারণে অভিযুক্তকে গ্রেপ্তারে ঢুষমারা পুলিশের সহযোগিতা নেয়া হয়েছে। গ্রেপ্তারকৃত সফিকুল ইসলামকে রোববার (২৫ জুলাই) আদালতে সোপর্দ করা হয়েছে। এছাড়া ডাক্তারি পরীক্ষার জন্য ভুক্তভোগীকে হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। বাকি আসামিদের গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে।