বান্ধবীর সঙ্গে যুবকদের আপত্তিকর ছবি তুলে লাখ টাকার প্রতারণা

বার্তাজগৎ২৪/ এমএ
বার্তাজগৎ২৪ ডেস্ক : বার্তাজগৎ২৪ ডেস্ক :
প্রকাশিত: ৪:১৮ অপরাহ্ন, ১৮ অগাস্ট ২০২২ | আপডেট: ৬:৪৯ পূর্বাহ্ন, ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২২
অপরাধী চক্রের তিন সদস্য

বান্ধবীকে দিয়ে টার্গেটকৃত যুবকদের প্রেমের ফাঁদে পেলে আপত্তিকর ছবি তুলে কয়েক লাখ টাকা হাতিয়ে নিত একটি চক্র। এই চক্রের তিন সদস্যকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

বৃহস্পতিবার (১৮ আগস্ট) বিকালে এই তথ্য জানিয়েছেন ঢাকা মহানগরের উত্তরা পশ্চিম থানার ওসি মোহাম্মদ মোহসীন।
 
তিনি জানান, বুধবার (১৭ আগস্ট) রাতে উত্তরা পশ্চিম থানার বার-তের মোড় এলাকা থেকে তাদের গ্রেফতার করা হয়েছে। গ্রেফতারকৃতরা হলেন- আব্দুস সালাম, মোহাম্মদ মজনু তার বান্ধুবী রওশন আরা রুমা। 

ওসি জানান, এ চক্রের প্রধান মোহাম্মদ মজনু ও তার বান্ধবী রওশন আরা রুমা। রুমা মোবাইলে ভুলে টাকা চলে গেছে বলে এক ব্যক্তির সঙ্গে ভাব করে এবং এক পর্যায়ে বাসায় ডেকে আনে। পরে মজনু চক্রের বাকি সদস্য নিয়ে ওই ব্যক্তিকে জিম্মি করে। এছাড়া আপত্তিকর ছবি তুলে কয়েক লাখ টাকা হাতিয়ে নেয়। 

তিনি আরও জানান, মজনু একটি বেকারিতে কর্মচারী হিসেবে কাজ করে। সেই দোকানেরই মালিক আল আমিন। গত ১১ জুলাই তাকে ফোন করে রুমা। চালাকি করে এর আগেই তার মোবাইলে ৫০ টাকা দিয়ে দেন তিনি। এরপর ভুলে ওই টাকা চলে গেছে বলে ভাব জমান। এভাবে কয়েকদিন কথা বলার পর একদিন রুমা আল আমিনকে তার বাসায় দাওয়াত দেন। আল আমিন বাসায় যান। যাওয়ার সময় মজনুকেও নিয়ে যায়। বাসায় যাওয়ার পর মজনু বাইরে যাবে বলে বেরিয়ে যান।

এর কিছুক্ষণ পর সেখানে ডিবি পরিচয়ে কয়েকজন প্রবেশ করে তারা আল আমিনকে মারধর করে এবং রুমার সঙ্গে আপত্তিকর ছবি তোলে। পরে ১০ লাখ টাকা দাবি করে তারা। টাকা না দিলে তাকে গুম করারও হুমকি দেয়। আল আমিন এক পর্যায়ে তাদের সাড়ে ৩ লাখ টাকা দেন। এ সময় তার সঙ্গে থাকা আরও ৩৭ হাজার টাকা তারা ছিনিয়ে নেন। পরে পুলিশকে জানালে তাদের তিনজনকে গ্রেফতার করা হয়। তাদের কাছ থেকে ৫৬ হাজার টাকাও উদ্ধার করা হয়।



মজনু প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে জানিয়েছেন, তাদের চক্রে মোট আটজন সদস্য রয়েছে। তাদেরকেও গ্রেফতারে অভিযান অব্যাহত রয়েছে বলেও জানান ওসি মোহাম্মদ মোহসীন।

বার্তাজগৎ২৪/ এমএ