আমার পাকিস্তানই চলে যাওয়া উচিত :  আলিয়া ভাটের মা

বার্তাজগৎ২৪/ এমএ
বিনোদন ডেস্ক : বিনোদন ডেস্ক :
প্রকাশিত: ৩:২৫ অপরাহ্ন, ২৬ অগাস্ট ২০২২ | আপডেট: ৬:০৩ পূর্বাহ্ন, ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২২
ফাইল ছবি

বলিউড তারকারা সবসময়ই ভক্তদের  নজরবন্দিতে থাকেন। মুখ ফসকে একটা বেফাঁস কথা বলে দিলেই হল। ২০১৯ সালে আলিয়া ভাটের মা সোনি রাজদান করে ফেলেছিলেন এক বিতর্কিত মন্তব্য। তাও আবার পাকিস্তানের নাম উল্লেখ করে।

যা নিয়ে সেই সময় কম জলঘোলা হয়নি। আসলে কাশ্মীর হোক পাকিস্তান, এই দুই ইস্যু নিয়ে মন্তব্য করার সময় বেশ ভেবেচিন্তেই কথা বলেন তারকারা। তবে ভুল তো হয়ই থাকে! তখন মুক্তি পেতে চলেছিল সোনির সিনেমা ‘No Fathers In Kashmir’। আর সেখানেই তিনি কথা বলেন কাশ্মীর, পাকিস্তান নিয়ে। 

এমনকী পড়শি দেশে চলে যাওয়ার কথাও বলেন। সেই সময় নবভারত টাইমসের সঙ্গে কথা বলতে বলতে হঠাৎই সোনি বলে বসেন, ভারত-পাকিস্তান সমস্যার মাঝেও তিনি পাকিস্তানে চলে যেতে রাজি। আর তারপরই নেটপাড়ার একটা অংশ সোনি রাজদানের নামের আগে বসিয়ে দেয় ‘দেশদ্রোহী’র তকমা।

মহেশ ভাটের স্ত্রীর বক্তব্য ছিল, ‘আমি যখনই এরকম ধরনের কথা বলি আমাকে কিছু মানুষ দেশদ্রোহী বলে পাকিস্তানে পাঠিয়ে দেওয়ার কথা বলে। আমি তো কখনও কখনও ভাবি, হ্যাঁ আমার পাকিস্তানেই চলে যাওয়া উচিত। ওখানে অন্তত আমি ভালো থাকব। ওখানে খাবারও খুব সুস্বাদু পাওয়া যায়।’

সোনি এরপর আরও বলেন, ‘এখানে তো কিছু মানুষ আছে যারা আমাকে ভাগাতে পারলে বাঁচে। অনেকবারই বলেছে পাকিস্তান চলে যাও। তবে এমন অনেক মানুষ আছেন যারা আমার মতো করে ভাবেন। তাই কে কী বলল তাতে আমার কিছু যায় আসে না।’ 

বার্তাজগৎ২৪/ এমএ