মাদক ব্যবসার অভিযোগে পুলিশের এসআইসহ ৫ জন কারাগারে

বার্তাজগৎ২৪/কেএইচ
বার্তাজগৎ২৪ ডেস্ক: বার্তাজগৎ২৪ ডেস্ক:
প্রকাশিত: ৩:২২ পূর্বাহ্ন, ০৭ সেপ্টেম্বর ২০২২ | আপডেট: ৩:২২ পূর্বাহ্ন, ০৭ সেপ্টেম্বর ২০২২
অভিযুক্ত এসআই

মাদক ব্যবসার সঙ্গে জড়িত থাকার অভিযোগে ময়মনসিংহের ভালুকা মডেল থানার তিন পুলিশ সদস্য ও দুই সোর্সকে কারাগারে পাঠানো হয়েছে। গতকাল সোমবার রাতে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন পুলিশের কোর্ট পরিদর্শক মো. জসিম উদ্দিন।

গ্রেপ্তারকৃতরা হলেন-ভালুকা মডেল থানার উপপরিদর্শক (এসআই) মানস কুমার শিকদার (২৯), কনস্টেবল আব্দুল মান্নান (৩৪), কনস্টেবল মুসফিকুজ্জামান (৩৪), পুলিশের সোর্স মো. আশিকুর রহমান নিরব (২৪) ও খোকন শেখ (২৬)।

জানা যায়, গত শনিবার সকালে ভালুকা পৌর শহরের বাসস্ট্যান্ড এলাকায় ইয়াবা বেচাকেনার খবর পেয়ে অভিযান চালায় মডেল থানা-পুলিশ। এ সময় পুলিশের সোর্স মো. আশিকুর রহমান নিরব ও খোকন শেখ দৌড়ে পালানোর চেষ্টা করলে তাঁদের গ্রেপ্তার করা হয়। পরে তাঁদের শরীরে তল্লাশি চালিয়ে ২২০ পিস ইয়াবা জব্দ করা হয়েছে।

প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে উপপরিদর্শক মানস কুমার শিকদার, কনস্টেবল আব্দুল মান্নান ও কনস্টেবল মুসফিকুজ্জামানের সহযোগিতায় তাঁরা দীর্ঘদিন ধরে মাদক ব্যবসা করে আসছেন বলে স্বীকার করেছেন। তাঁদের দেওয়া তথ্যের ভিত্তিতে ওই দিন রাতেই কনস্টেবল আব্দুল মান্নানকে গ্রেপ্তারের পর তাঁর বাসায় তল্লাশি চালিয়ে ৭৬৯ পিস ইয়াবা জব্দ করা হয়। একই অভিযোগে উপপরিদর্শক মানস কুমার শিকদার ও কনস্টেবল মুসফিকুজ্জামানকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

এ বিষয়ে মো. জসিম উদ্দিন সাংবাদিকদের বলেন, ওই পাঁচজনকে গত রোববার বিকেলে আদালতের তোলা হয়। পরে বিচারক তাঁদের কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেন।

জেলা পুলিশ সুপার মাছুম আহাম্মদ ভূঞা সাংবাদিকদের বলেন, ‘মাদক ব্যবসার সঙ্গে জড়িত থাকায় উপপরিদর্শক মানস, কনস্টেবল মুসফিকুজ্জামান ও মান্নানসহ ৫ জনকে গ্রেপ্তার করা হয়। তাঁদের বিরুদ্ধে মাদক আইনে মামলা দিয়ে আদালতে পাঠানো হয়েছে।’ 

বার্তাজগৎ২৪/কেএইচ