টেলিভিশনে দেখানো হচ্ছে ‘হাসিনা: আ ডটার’স টেল’

দিদারুল ইসলাম:

প্রকাশিতঃ ১৩ অগাস্ট ২০২০ সময়ঃ রাত ৯ঃ১৩
টেলিভিশনে দেখানো হচ্ছে ‘হাসিনা: আ ডটার’স টেল’
টেলিভিশনে দেখানো হচ্ছে ‘হাসিনা: আ ডটার’স টেল’

 

দিদারুল ইসলাম:

মুজিববর্ষে জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষ্যে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ব্যক্তি জীবনের অজানা-অদেখা গল্প নিয়ে নির্মিত প্রামাণ্যচিত্র ‘হাসিনা: আ ডটার’স টেল’ শুক্রবার বাংলাদেশ টেলিভিশন ছাড়াও বেসরকারি আটটি টেলিভিশন চ্যানেলে প্রচারিত হতে যাচ্ছে।

সেন্টার ফর রিসার্চ অ্যান্ড ইনফরমেশনের (সিআরআই) এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানিয়েছে, শুক্রবার সকাল ১০টা ৫০ মিনিটে ইন্ডিপেনডেন্ট টেলিভিশন, রাত ১১টায় এটিএন নিউজ, সকাল ১১টা ৩০ মিনিটে চ্যানেল আই, দুপুর ১২টায় একুশে টেলিভিশন, দুপুর ৩টায় বাংলাদেশ টেলিভিশন একই সময়ে একাত্তর টেলিভিশন, বিকাল ৫টায় বিজয় টেলিভিশন, বিকাল ৫টা ৪৫ মিনিটে চ্যানেল টোয়েন্টিফোরে এই প্রামান্যচিত্র প্রদর্শিত হবে।

সেইসঙ্গে প্রামাণ্যচিত্রটি মাছরাঙা টেলিভিশনে সকাল ১১টায় প্রচারের পর তা পুন:প্রচার হবে রাত ১২টায়।

১৯৫২ সালে পরিবারের সদস্যদের সঙ্গে ঢাকায় আসা থেকে শুরু করে শেখ হাসিনার ব্যক্তিগত ও রাজনৈতিক জীবনের বিভিন্ন ঘটনা উঠে এসেছে এই প্রামাণ্যচিত্রে।

১৯৭৫ সালের ১৫ অগাস্ট দুই বোন শেখ হাসিনা ও শেখ রেহানা বিদেশে থাকা অবস্থায় পরিবারের সকল সদস্য সহ বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে  হত্যা করা হয়। এরপর নির্বাসিত জীবন কাটিয়ে ১৯৮১ সালে শেখ হাসিনার দেশে ফেরা, দিক হারানো আওয়ামী লীগের হাল ধরে দলকে আবার কক্ষপথে ফেরানো, স্বৈরাচারবিরোধী আন্দোলন, জনগণের ভোটে নির্বাচিত হয়ে প্রধানমন্ত্রীর দায়িত্ব গ্রহণ সহ সব বিষয়ই এই প্রামাণ্যচিত্রে তুলে এনেছেন নির্মাতা।

পিপলু খান নির্মিত প্রামাণ্যচিত্রটি এরই মধ্যে দেশে-বিদেশে বিভিন্ন জায়গায় প্রদর্শিত হয়ে প্রশংসা কুড়িয়েছে।

সিআরআইর ব্যানারে নির্মিত প্রামান্যচিত্রটির প্রযোজক হিসেবে রয়েছেন বঙ্গবন্ধুর দৌহিদ্র ও সিআরআইর ট্রাস্টি রাদওয়ান মুজিব সিদ্দিক এবং বিদ্যুৎ, জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ প্রতিমন্ত্রী ও সিআরআইর ট্রাস্টি নসরুল হামিদ।

প্রামাণ্যচিত্রটির সঙ্গীতায়োজন করেছেন দেবজ্যোতি মিস্ত্র, সিনেমাটোগ্রাফি সাদিক আহমেদ, সম্পাদনা করেছেন নবনীতা সেন।

বার্তাজগৎ২৪/ এম এ

Share on: