পারিবারিক সম্পত্তি নিয়ে দন্দ্ব, ভাইয়ের হাতে ভাই খুন

বার্তাজগৎ২৪ ডেস্ক:

প্রকাশিতঃ ৮ ফেব্রুয়ারী ২০২০ সময়ঃ রাত ১০ঃ১০
পারিবারিক সম্পত্তি নিয়ে দন্দ্ব, ভাইয়ের হাতে ভাই খুন
পারিবারিক সম্পত্তি নিয়ে দন্দ্ব, ভাইয়ের হাতে ভাই খুন

বার্তাজগৎ২৪ ডেস্ক:

বরিশাল নগরীতে পারিবারিক সম্পত্তি নিয়ে দ্বন্দ্বের জের ধরে ভাইকে পিটিয়ে হত্যার অভিযোগ উঠেছে তিন ভাইয়ের বিরুদ্ধে। এই ঘটনায় অভিযুক্ত দুই ভাইসহ তিন জনকে আটক করেছে পুলিশ।

শনিবার (৮ ফেব্রুয়ারি) সকাল সাড়ে ১০টার দিকে বরিশাল নগরীর বগুরা রোড এলাকায় এই ঘটনা ঘটে। নিহত মো. ফরিদ হোসেন (৪৫) ওই এলাকার জেসমিন ভিলার বাসিন্দা মৃত এমএ মজিদ খানের ছেলে।

আটক তিনজন হলেন, নিহতের ভাই মো. শাহে আল খান, মফিজুল ইসলাম খান নান্নু ও তার ছেলে নবম শ্রেণির ছাত্র সিয়াম।

নিহত ফরিদ হোসেনের আরেক ভাই জিয়াউর রহমান খান জানান, তারা ১০ ভাই ও ৩ বোন। এদের মধ্যে মো. ফরিদ হোসেন খান তাদের বাড়ির সামনে থাকা কাতার থাই অ্যালুমিনিয়াম ফেব্রিকেটর নামে একটি দোকান ভাড়া দিতেন।

জিয়াউর রহমান জানান, সম্প্রতি ওই দোকানের ভাড়া নিয়ে তাদের ভাইদের মধ্যে বিরোধ দেখা দেয়। এতে ওই দোকানের ভাড়াটিয়া স্থানীয় বাসিন্দা কাজাজও জড়ায়। শনিবার সকাল সাড়ে ১০টার দিকে কাজাজের কাছে ভাড়া আনতে যান ফরিদ হোসেন। এসময় দুজনের মধ্যে কথা কাটাকাটি হয়। তখন কাজাজ ফরিদের আরেক ভাই মো. শাহ আলম খান, মফিজুল ইসলাম খান নান্নু, মজিবর রহমান ও ভাতিজা সিয়ামকে ডেকে নেন। সেখানে কথা কাটাকাটির একপর্যায় শাহ আলম, মফিজুল ইসলাম খান নান্না, মজিবর রহমান, সিয়াম ও স্টলের ভাড়াটিয়া কাজাজ মিলে ফরিদ হোসেনের উপর হামলা করে। এসময় তারা পাইপ ও ইট দিয়ে ফরিদকে মারধর করেন। বাধা দিতে গেলে জিয়াউর রহমানকেও মারধর করেন অন্য ভাইয়েরা।

গুরুতর আহত অবস্থায় ফরিদ হোসেনকে উদ্ধার করে বরিশাল শের-ই-বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেওয়া হলে জরুরি বিভাগের দায়িত্বরত চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন।

বরিশাল কোতোয়ালী মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. নুরুল ইসলাম বলেন, প্রাথমিকভাবে নিশ্চিত হওয়া গেছে দোকানের ভাড়া টাকা নিয়ে দ্বদ্বের জের ধরে এই হত্যাকাণ্ড  ঘটেছে। এই অভিযোগের ভিত্তিতে নিহতের ভাই অভিযুক্ত শাহে আলমকে আটক করা হয়েছে। এছাড়া তার অপর ভাই মফিজুল ইসলাম খান নান্না ও তার ছেলে সিয়ামকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য থানায় নেয়া হয়েছে। পাশাপাশি অভিযুক্ত দোকানের ভাড়াটিয়া কাজাজ ও অপর ভাই মজিবর রহমানকে আটকের চেষ্টা চলছে বলে জানান ওসি।

বার্তাজগৎ২৪/সা/হ

Share on: