বলিউড জগতে মায়েদের চেয়ে সফল যে ৬ কন্যা

বার্তাজগৎ২৪ ডেস্ক:

প্রকাশিতঃ ৪ ফেব্রুয়ারী ২০২০ সময়ঃ দুপুর ২ঃ৪৬
বলিউড জগতে মায়েদের চেয়ে সফল যে ৬ কন্যা
বলিউড জগতে মায়েদের চেয়ে সফল যে ৬ কন্যা

বার্তাজগৎ২৪ ডেস্কঃ 

হেমা মালিনি, সুচিত্রা সেন, মালা সিনহা, শর্মিলা ঠাকুর, ডিম্পল কাপাডিয়ার মত বিখ্যাত নায়িকাদের কন্যা হচ্ছে এশা দেওল, মুনমুন সেন, প্রতিভা সিনহা, সোহা আলী খান ও টুইঙ্কেল খান্না। মায়েদের মত অতটা সফল নন এদের কেউই।

আবার অনেক মা-মেয়ে সমান জনপ্রিয় ছিলেন এবং দুই প্রজন্ম ধরে শাসন করেছেন বলিউডকে— শোবানা সমার্থ ও নূতন, তানুজা ও কাজল এর প্রকৃষ্ট উদাহরণ। কিন্তু এমন অনেক কন্যা আছে যাদের মায়েরা অতটা সফল না থাকলেও তারা হয়েছেন দারুণ সফল। এমন ছয়কন্যাকে নিয়ে এ আয়োজন।

কারিশমা ও কারিনা কাপুর: দুজনেই তাদের মা ববিতার চেয়ে অনেক বেশি সফল। যদিও ববিতা ষাট দশকে ফারজ, কাব কিউন অর কাহানের মত হিট উপহার দিয়েছিলেন। কিন্তু তিনি তার ক্যারিয়ারের চেয়ে প্রেমিক রনধীর কাপুরের ব্যাপারে বেশি সিরিয়াস ছিলেন। বিয়ের পর তো তিনি অভিনয়ই ছেড়ে দেন। অন্যদিকে তার দুই কন্যা কারিশমা ও কারিনা ৯০ দশক ও শূন্য দশকে বলিউড কাঁপিয়েছেন। কারিনা সাইফ আলী খানের সাথে বিয়ের পরও হিট দিয়ে যাচ্ছেন।

আলিয়া ভাট: সনি রাজদান যদিও কোন প্রভাবশালী অভিনেত্রী ছিলেন না, কিন্তু তিনি আজীবন স্মরণীয় হয়ে থাকবেন মহেশ ভাটের ‘সারাংশ’র জন্য। ছবিটিতে তিনি গর্ভবতী মেয়ের ভূমিকায় অভিনয় করেছিলেন। যেখানে সনি আজও পেরিফেরাল খোলোয়াড় হিসেবে রয়ে গিয়েছেন সেখানে তার মেয়ে আলিয়া প্রথম দিন থেকেই তারকা। করন জোহরের ‘স্টুডেন্ট অব দ্য ইয়ার’র পর থেকে এমন কোন বড় প্রযোজনা সংস্থা নেই যাদের সাথে আলিয়া কাজ করেননি।

সারাহ আলী খান: হয়ত আপনি বলতে পারেন সারাহ আলীর খানের মা অমৃতা সিং তারকা ছিলেন। তার অভিনীত বেশকিছু ছবি হিটও হয়েছিলো। কিন্তু অধিকাংশ ছবিতে আলো ছিলো নায়কদের প্রতি। মনমোহন দেশাইয়ের ‘মারদ’ কিংবা মহেশ ভাটের ‘নাম’ এর প্রকৃষ্ট উদাহরণ। অন্যদিকে সারাহ শুরু থেকে ছিলেন ছবির প্রধান ভূমিকায়— কেদারনাথ, লাভ আজ কাল, কুলি নাম্বার ওয়ান। সারাহ শুধু মায়ের চেয়ে বেশি সফল না তার বাবার চেয়েও বেশি সফল ধরা হয় তাকে।

সোনাক্ষী সিনহা: অনেকেই জানেন না যে সোনাক্ষীর মা পুনম ১৯৬০’র শেষ দিকে এবং ১৯৭০’র শুরুর দিকে খুবই সংক্ষিপ্ত সময়ের জন্য বলিউডের অভিনেত্রী ছিলেন। তিনি জিতেন্দ্রের বিপরীতে খুব ভালোভাবে শুরুও করেছিলেন ‘জিগরি দোস্ত’ দিয়ে। কিন্তু তার ক্যারিয়ার তারপর খুব একটা এগোয়নি তখনকার প্রেমিক শত্রুঘ্ন সিনহার সাথে কয়েকটি ফ্লপ দেওয়ার পর। সোনাক্ষীও শুরুতে মায়ের মত প্রেমের ব্যাপারে বেশি সিরিয়াস ছিলেন ক্যারিয়ারের চেয়ে। তবে তার ওপর ‘ভাইজান’ সালমান খানের দৃষ্টি পরার পর পরিস্থিতি বদলায়। তার হাত ধরে সোনাক্ষীর ক্যারিয়ার তার মায়ের চেয়ে অনেক বেশি দূর এগিয়েছে।

আলেয়া ফার্নিশওয়ালা: আলেয়ার মা পূজা বেদি কখনও তার ক্যারিয়ার নিয়ে সচেতন ছিলেন। সবসময় ভাবতেন ‘জো জিতা ওহি সিকান্দার’। অন্যদিকে তার কন্যা আলেয়া ‘জাওয়ানি জানেমান’র দিন থেকেই জানে একজন ‘পারফেক্ট তারকা’। পূজা বেদি যখন তার উঠতি দিনগুলোতে ছিলেন উশৃঙ্খল, অন্যদিকে আলেয়া ঠিক ততটাই শৃঙ্খল। কোনো লেট-নাইট, কোন পার্টি কিংবা বাজে জিনিসে তাকে পাওয়া যায় না। আলেয়া জানেন তার ক্ষমতা সম্পর্কে। তিনি ইতিমধ্যেই বুঝে ফেলেছেন ‘তারকারা জন্মায়’।

বার্তাজগৎ২৪/সা/হ

Share on: