শ্রীমঙ্গলে প্রেমিকের সামনে প্রেমিকাকে গণধর্ষণ

বার্তাজগৎ২৪ ডেস্ক:

প্রকাশিতঃ ৮ ফেব্রুয়ারী ২০২০ সময়ঃ রাত ১১ঃ৩৫
শ্রীমঙ্গলে প্রেমিকের সামনে প্রেমিকাকে গণধর্ষণ
শ্রীমঙ্গলে প্রেমিকের সামনে প্রেমিকাকে গণধর্ষণ

বার্তাজগৎ২৪ ডেস্ক:

জেলার শ্রীমঙ্গল উপজেলায় চা বাগানের ভেতরে গাছের সঙ্গে বেঁধে রেখে তার প্রেমিকাকে গণধর্ষণ করা হয়েছে। শনিবার (৮ ফেব্রুয়ারি) এ ঘটনায় জড়িত থাকার অভিযোগে চা বাগানের দুই প্রহরীসহ টমটম চালককে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

গতকাল শুক্রবার (৭ ফেব্রুয়ারি) রাত সাড়ে ৯টার দিকে উপজেলার শহরতলীর বধ্যভূমি সংলগ্ন ওই চা বাগানের ভেতরে এ ঘটনা ঘটে। গ্রেফতার তিনজন হলো- উপজেলার ভাড়াউড়া চা বাগানের প্রহরী কৈলাশ দোসাদ (২৫) ও মিন্টু মৃধা (২৯) এবং টমটম চালক কবির মিয়া (২৮)।

ওই কিশোরীর মা জানান, তার মেয়ে দিনাজপুরে একটি বাসায় কাজ করতো। দুই সপ্তাহ আগে সে শ্রীমঙ্গলে আসে। শুক্রবার সন্ধ্যার পর পাশের বাড়ির পূর্ব পরিচিত ইয়াকুব আলীর সঙ্গে বধ্যভূমিতে বেড়াতে যান তার মেয়ে। ফেরার পথে গণধর্ষণের শিকার হয় সে।

শ্রীমঙ্গল থানার পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) মো. সোহেল রানা জানান, শুক্রবার সন্ধ্যার পর পূর্ব পরিচিত পাশের বাড়ির ইয়াকুব আলীকে নিয়ে বধ্যভূমি এলাকায় বেড়াতে যায় ওই কিশোরী। সেখানে রাত ৯টা পর্যন্ত অবস্থান করে তারা। ফেরার পথে চা বাগানের দুই প্রহরী তাদের টমটমে ওঠে। পরে তারা মেয়েটির সঙ্গে থাকা ইয়াকুবকে রশি দিয়ে গাছের সাথে বেঁধে তার সামনেই মেয়েটিকে ধর্ষণ করে। পরে রাত সাড়ে ১০টার দিকে ওই কিশোরী ও ইয়াকুবকে বধ্যভূমির কাছাকাছি সড়কে নামিয়ে দিয়ে টমটম নিয়ে পালিয়ে যায় তারা।

পুলিশের এই কর্মকর্তা আরও জানান, ঘটনা জানার পর মেয়েটির মা রাতেই থানায় যান। পরে অভিযান চালিয়ে ভাড়াউড়া চা বাগান থেকে অভিযুক্ত তিনজনের মধ্যে দু’জন এবং সিন্দুরখান এলাকা থেকে টমটম চালক কবির মিয়াকে গ্রেফতার করা হয়। ডাক্তারি পরীক্ষা-নিরীক্ষার জন্য ওই কিশোরীকে মৌলভীবাজার সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। এ বিষয়ে থানায় মামলা হয়েছে বলেও জানান পরিদর্শক সোহেল রানা।

বার্তাজগৎ২৪/সা/হ

Share on: