৩ বছরেও শেষ হয়নি আজিমপুর কবরস্থানের সংস্কার

নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ৩:০৭ অপরাহ্ন, ৩০ জুন ২০২১ | আপডেট: ৬:১৩ পূর্বাহ্ন, ২৮ জুন ২০২২

৪৯ কোটি টাকা ব্যয়ে তিন বছর আগে আজিমপুর কবরস্থানের অবকাঠামো উন্নয়নকাজ শুরু হয়েছিল। নির্ধারিত সময়ের পর সময় বাড়িয়েও সে কাজ শেষ হয়নি। উল্টো নতুন করে ‘অ্যাডিশনাল টেন্ডার’ আহ্বান করেছে ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশন (ডিএসসিসি)।

ডিএসসিসি সংশ্লিষ্টরা বলছেন, আগের কার্যাদেশ অনুযায়ী কবরস্থান সংস্কারে ৪৯ কোটি টাকা বরাদ্দ ছিল। নির্ধারিত সময়ে কাজ শেষ না হওয়া ও কাজের পরিধি বাড়ায় বরাদ্দের সব টাকা ব্যয় হয়েছে। এখন কবরস্থানের নিউমার্কেট রোড থেকে আজিমপুর রোড পর্যন্ত (উত্তর-দক্ষিণ) শেডসহ দ্বিতল হাঁটার পথ এবং উত্তর পাশে স্বচ্ছ কাচের প্রাচীর স্থাপনের কাজ বাক। এ কাজের জন্যই ফের দরপত্র আহ্বান করা হয়েছে।

এ অবস্থায় অবকাঠামো উন্নয়নের নামে তিন বছর ধরে কবরস্থানে খোঁড়াখুঁড়ি চলায় ক্ষোভ প্রকাশ করেন স্থানীয় বাসিন্দারা। তাদের অভিযোগ, সংস্কারকাজ চলায় অনেক সময় মরদেহ দাফন এবং কবর জিয়ারতে সমস্যা হচ্ছে।

jagonews24

ডিএসসিসির প্রকৌশল বিভাগ সূত্র জানায়, সংস্থাটির বিভিন্ন অবকাঠামো উন্নয়ন প্রকল্পের অংশ হিসেবে আজিমপুর কবরস্থানের উন্নয়নমূলক কাজ  চলছে। ইতোমধ্যে এ প্রকল্পের আওতায় কবরস্থানের দক্ষিণ পাশে স্বচ্ছ কাচের সীমানাপ্রাচীর, চারপাশে প্রশস্ত চলার পথ, পানি নিষ্কাশনের জন্য ড্রেনেজ ব্যবস্থা, মেয়র মোহাম্মদ হানিফ জামে মসজিদ সংলগ্ন ওয়াটার বডি স্থাপন, কবরস্থানের উত্তর (নিউ মার্কেটে গেটের দিকে) ও দক্ষিণে দুটি ভবনসহ পৃথক ফটক নির্মাণ করা হয়েছে। এছাড়া প্রতিটি কবরের নম্বর নির্ধারণ, এলইডি বাতি ও সিসি ক্যামেরা স্থাপন, কবরস্থান সবুজায়ন, অজুখানা, লাশ গোসল এবং জানাজা নামাজের জন্য পৃথক ব্যবস্থা করা হয়েছে।

প্রায় ৭৪ বিঘা জমির ওপর গড়ে ওঠা আজিমপুর কবরস্থানের উন্নয়নে ওই প্রকল্প বাস্তবায়ন করছে ডিএসসিসি। এ কাজগুলো বাস্তবায়নে প্রকল্পের ৪৯ কোটি টাকা ব্যয় হয়েছে। কার্যাদেশ অনুযায়ী শেডসহ দ্বিতল হাঁটার পথ ও কবরস্থানের উত্তর অংশে কাচের দেয়াল স্থাপন বাকি।