রিয়েলমি প্যাড মিনি আসলো ফিলিপাইনের বাজারে

বার্তাজগৎ২৪/এসএস
সিরাজুস সালেকীন সিরাজুস সালেকীন
প্রকাশিত: ২:১৫ পূর্বাহ্ন, ০৬ এপ্রিল ২০২২ | আপডেট: ৪:১৫ অপরাহ্ন, ০৫ এপ্রিল ২০২২

অবশেষে সকল তর্ক-বিতর্কের অবসান ঘটিয়ে ফিলিপাইনের বাজারে ৪ এপ্রিল লঞ্চ হয়েছে রিয়েলমি প্যাড মিনি। এর আগে ২০২১ সালের ১৬ সেপ্টেম্বর রিয়েলমি বাজারে ছাড়ে তাদের প্রথম ট্যাবলেট রিয়েলমি প্যাড। তারই ধারাবাহিকতায় এবার তারা দ্বিতীয় ট্যাবলেট বাজারে ছাড়লো। এবারের ট্যাবলেটটি আকৃতিতে আগের মডেলের চেয়ে প্রায় দেড় ইঞ্চি ছোট। রিয়েলমি প্যাডের আকৃতি লম্বায় ছিল প্রায় ১০ ইঞ্চি আর রিয়েলমি প্যাড মিনির আকৃতি প্রায় সাড়ে আট ইঞ্চি। তবে পুরুত্বের দিক দিয়ে এটি রিয়েলমি প্যাডের তুলনায় কিছুটা বাড়তি। ডিসপ্লে, আকৃতি, ক্যামেরা, ব্যাটারি সবদিক দিয়ে এই ট্যাবটি ছোট বিধায় এর নাম দেওয়া হয়েছে রিয়েলমি প্যাড মিনি।

যদিও রিয়েলমি প্যাড-এ মিডিয়াটেকের হেলিও জি ৮০ চিপসেট ব্যবহার করা হয়েছিল কিন্তু রিয়েলমি প্যাড মিনিতে ব্যবহার করা হয়েছে ইউনিসক চিপসেট। এই চিপসেট সাধারণত চীনের স্থানীয় বাজারের স্মার্টফোনগুলোতে বেশি ব্যবহার করা হয়। আন্তর্জাতিক বাজারে এর চাহিদা কম। হতে পারে খরচ কমানোর জন্য রিয়েলমি এই পদক্ষেপ নিয়েছে। এর আগেও রিয়েলমি তার নারজো ফিফটি আই স্মার্টফোনটিতেও এই চিপসেট ব্যবহার করেছিলো। সাধারণত অ্যালকাটেল, টিসিএল, নোকিয়া, জিওনি, টেকনো ও ইনফিনিক্স এই চিপসেটের প্রধান ব্যবহারকারী। আন্তর্জাতিক বাজারে শীঘ্রই রিয়েলমি প্যাড মিনি কিনতে পাওয়া যাবে বলে জানিয়েছে রিয়েলমি। তবে কবে থেকে পাওয়া যাবে তা নিশ্চিত করেনি তারা।


ট্যাবটির প্রসেসর হিসাবে ব্যবহার করা হয়েছে ইউনিসক-এর ১২ মিলিমিটার প্ল্যাটফরমের 'টাইগার টি ৬১৬' চিপসেট। আট কোরের এই প্রসেসরটি ২ গিগাহার্জ পর্যন্ত স্পিড আপ করতে সক্ষম। সহায়ক হিসাবে থাকছে ৩ ও ৪ গিগাবাইট র‍্যাম। গ্রাফিক্স কার্ড হিসাবে ব্যবহার করা হয়েছে মালি জি ৫৭ এমপি ওয়ান। আরও থাকছে ৩২ ও ৬৪ গিগাবাইট স্টোরেজ সুবিধা। ট্যাবটি চলবে অ্যান্ড্রোয়েড ইলেভেন অপারেটিং সিস্টেমে তবে ইউজার ইন্টারফেস বা ইউআই সম্পর্কে কিছু জানায়নি রিয়েলমি। রিয়েলমি প্যাড মিনি পাওয়া যাবে ৩/৩২ ও ৪/৬৪ দুইটি ভ্যারিয়েন্টে।

ট্যাবটির ডিসপ্লে হিসাবে দেওয়া হয়েছে ৮.৭ ইঞ্চির আইপিএস এলসিডি মনিটর। ডিসপ্লের রেজুলেশন ৮০০বাই১৩৪০ (ওয়াইড এক্সজিএ)। ডিসপ্লের সুরক্ষা স্ক্রিন সম্পর্কে বিস্তারিত জানা যায়নি।

রিয়েলমি প্যাড মিনি'র পিছনের ক্যামেরা প্যানেলে ক্যামেরা একটি। দেওয়া হয়েছে ২ অ্যাপারচারের ৮ মেগাপিক্সেল ইমেজ সেন্সর। ভিডিও ধারণ করা যাবে ফুল এইচডি ফরম্যাটে। সেলফি ক্যামেরা হিসাবে থাকছে ২.২ অ্যাপারচারের ৫ মেগাপিক্সেল ইমেজ সেন্সর।

ট্যাবটি সচল রাখতে ব্যবহার করা হয়েছে ৬৪০০ মিলি অ্যাম্পিয়ারের লিথিয়াম পলি ব্যাটারি যা ১৮ ওয়াট ফাস্ট চার্জিং সাপোর্টেড। এতে একটি ন্যানো সিমকার্ড ব্যবহার করা যাবে। ট্যাবটি পাওয়া যাবে ধূসর ও নীল দুটো রঙে। অ্যালুমিনিয়াম বডির এই ট্যাবটির ওজন ৩৭২ গ্রাম।

রিয়েলমি প্যাড মিনি'র ৩/৩২ ভ্যারিয়েন্টটির মূল্য নির্ধারণ করা হয়েছে ১৯৫ ইউএস ডলার যা বাংলাদেশি টাকায় প্রায় ১৭ হাজার টাকা এবং ৪/৬৪ ভ্যারিয়েন্টটির মূল্য নির্ধারণ করা হয়েছে ২৩৫ ইউএস ডলার যা বাংলাদেশি টাকায় প্রায় ২১ হাজার টাকা।

যদি এপ্রিলের শেষ দিকে ট্যাবটি আন্তর্জাতিক বাজারে চলেও আসে তবে বাংলাদেশে কবে আসবে বা আদৌ আসবে কি না তা নিশ্চিত করে বলা যাচ্ছে না।

বার্তাজগৎ২৪/এসএস